চরম দুঃসময়ে পথ দেখাবে যে ১০টি উক্তি!

সকালবেলা নতুন একটা সুন্দর উক্তি পড়লে পুরো দিনটা ভালো কাটে- এমন একটা দাবি প্রায়শই শোনা যায়। দাবিটা সত্যি কি মিথ্যা জানি না, তবে গত কয়েক মাস ক্লাস-পরীক্ষা আর সবকিছু মিলিয়ে খুব বিশ্রি একটা সময় কাটাচ্ছিলাম, এই সময়টায় সাংঘাতিক কাজে দিয়েছিলো বেশ কিছু উক্তি। নির্দিষ্ট কোন মানুষের নয়, একেবারেই যাকে বলে Random Quotes পড়ে মনটাই ভালো হয়ে গিয়েছিলো।

আশেপাশের বেশিরভাগ মানুষকেই কেন যেন ভয়াবহ ডিপ্রেসড দেখি। কারো পকেটে টাকা নেই, কারো মনের মানিব্যাগে এক আধুলিও পাওয়া যায় না, আবার কেউ বা সুখী সুখী মুখোশ পরে ভয়ানক অসুখী হয়ে থাকে ভেতরে ভেতরে। আমার মনে হয়েছে এই উক্তিগুলো অন্তত একবার পড়লেও মনের খেদগুলো একটু হলেও কমবে। চরম দুঃসময়ে সঙ্গী-সাথী হয়ে থাকবে চমৎকার এই ১০ উক্তি।

১। ক্রিস ব্র্যাডফোর্ড নামের প্রখ্যাত একজন লেখক খুব চমৎকার একটা কথা বলেছিলেন। ভদ্রলোক বেশ বাস্তববাদী, মিছে স্বপ্নের আশা দেখিয়ে গাছে তুলে মই কেড়ে নেবার মতো কাজ তিনি করেননি। তিনি একদম সোজাসাপ্টা কথা বলেছিলেন।

“ হাল ছেড়ে দেয়াটা খুব সহজ, ও কাজ সবাই পারে। কিন্তু সবাই যখন ধরেই নিয়েছে তুমি হেরে গিয়েছো, তখনও হাল না ছেড়ে দিয়ে চেষ্টা করাটাই হচ্ছে আসল শক্তির পরিচয়।”

এখন থেকে কবিতার কঠিন কিংবা গভীর অর্থ-সম্বলিত বাক্যগুলো নিজে নিজে বুঝতে আর কোন সমস্যা হবে না। কবিতায় হাইলাইট করা শব্দ/বাক্যের উপর মাউস নিলেই তার অর্থ -ব্যাখ্যা চলে আসবে! এবার বাংলা সৃজনশীল প্রশ্ন উত্তর করতে আর কোনো সমস্যা হবেনা!

২। আমেরিকার প্রখ্যাত কমেডিয়ান মিল্টন বার্লে খুব মজার মানুষ ছিলেন। হাস্যরসের সাথে জীবনধর্মী সব কথাবার্তার মিশেলে বার্লে ছিলেন যাকে বলে সব অনুষ্ঠানের প্রাণ। মানুষটি অনুপ্রেরণামূলক সব উক্তিও দিয়েছেন অনেক। এর মধ্যে এই একটা আমার খুব পছন্দের।
“ সুযোগ যদি দরজায় এসে কড়া না নাড়ে, নতুন একটা দরজাই বানিয়ে ফেলো না হয়!”

 এই উক্তিটা অনেক বেশি জীবনধর্মী। হালের ভাষায় এটাকে ‘স্যাভেজ’ও বলা যায়।

“তুমি যদি জীবনের সঠিক রাস্তাতেই থাকো, কিন্তু কাজকর্ম না করে রাস্তার মাঝখানে বসে থাকো, গাড়িচাপা পড়ে মৃত্যু নিশ্চিত!”

আমার জীবনের সাথে এই উক্তিটার অনেক বেশি মিল পাই আসলে। ছোটবেলা থেকেই সাফল্য দেখে এসেছি, কখনো মনে হয়নি ভুল পথে আছি। কিন্তু ভয়াবহ আলসেমির জন্য কাজকর্ম সব কম করা শুরু-আর তারপরেই সেই গাড়িচাপা- যাকে ইংরেজিতে বলা যায় ডিপ্রেশন। তাই ক্ষণিকের সাফল্যে সুখী না হয়ে নিজেকে আরো ভালো করে গড়ে তোলার চেষ্টাটা করা উচিত। 

৪। পার্সি কবি রুমী আমার খুব প্রিয় একজন কবি। রুমীর প্রেমের কবিতা পড়ে কতো-শত বার প্রেমের স্বপ্ন দেখেছি, সেকথা না হয় থাক। পৃথিবীর সেরা কবিদের একজন এই রুমীর কবিতার প্রতিটি লাইনই বলতে গেলে এক একটা উক্তি। এর মধ্যেই একটা খুব মনে ধরেছিলো।

“জন্মেছো তুমি পাখি হয়ে, না উড়ে হামাগুড়ি দিয়ে জীবনটা পার করলে চলে?

৫। জাপানি সাহিত্যিক গই নাসু একটা কথা বলেছিলেন। কথাটা অনেক বেশি যৌক্তিক, সম্ভবত মানুষ বলেই আমরা সবসময় এই যুক্তিটাকে পাত্তা দেই না অতো। হিসাব করে দেখলাম, এই এক যুক্তি কাজে লাগালে জীবনে নেগেটিভিটি জিনিসটা আসলেই আর থাকবে না!

“এক সমুদ্র পানিও কিন্তু বিশাল জাহাজকে ডোবাতে পারে না, যদি না তারা জাহাজের ভেতরে ঢুকতে পারে। একইভাবে চারপাশের মানুষের হাজারো কটুক্তি তোমার কিছুই করতে পারবে না, যদি না তুমি তাদের তুমি গুরুত্ব দাও।”

৬। বিখ্যাত কলামিস্ট অ্যান ল্যান্ডারস Opportunity বা সুযোগ নিয়ে দারুণ একটা কথা বলেছিলেন। তাঁর ভাষ্যমতে:

“সুযোগ-সুবিধা সাধারণত লুকিয়ে থাকে কঠোর পরিশ্রমের আড়ালেই!”

মজায় মজায় ইংরেজি শিখ!

তোমার স্বপ্নের পথে পা বাড়ানোর ক্ষেত্রে তোমার ইংরেজির জ্ঞান কার্যকরী ভূমিকা রাখতে পারে!

তাই আর দেরি না করে, আজই ঘুরে এস ১০ মিনিট স্কুলের এই এক্সক্লুসিভ প্লে-লিস্টটি থেকে!

১০ মিনিট স্কুলের ইংরেজি ভিডিও সিরিজ

৭। জার্মান দার্শনিক নীৎশে দর্শন, সাহিত্য ও জীবন নিয়ে করা বিভিন্ন উক্তির জন্যে বিখ্যাত। এর মধ্যে একটা খুব চিন্তাশীল উক্তি হলো:
“যা আমাদের কাবু করতে পারে না, তা উলটো আমাদের শক্তিশালী করে তোলে!”

৮। মার্ক টোয়েনকে চেনে না এমন মানুষের সংখ্যা খুব বেশি নেই সম্ভবত। স্যামুয়েল লংহর্স ক্লিমেন প্রথম জীবনে বিভিন্ন ছোটখাটো কাজ করার পরে শুরু করেন সাংবাদিকতা। এই সাংবাদিক থেকেই অসাধারণ রসবোধ আর চমৎকার লেখনীর শৈলীতে অর্জন করেন বিপুল জনপ্রিয়তা। তাঁর উক্তিগুলোও প্রমাণ করে, কী অনুপ্রেরণামূলক একজন মানুষ ছিলেন তিনি!

“তোমার জীবনের সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ দিন দুটো। এক হচ্ছে যেদিন তুমি জন্ম নিলে, আরেক হচ্ছে যেদিন তুমি বুঝতে পারবে তোমার জন্মের উদ্দেশ্য কী!”

৯। বিংশ শতাব্দীর অন্যতম অনুপ্রেরণাদায়ী লেখজ জিম রন একটা কথা বলেছিলেন। মানুষটাকে একবিংশ শতাব্দীর মানুষ খুব একটা চেনে না, কিন্তু হালের এই মোটিভেশনাল স্পিকিং এর বিষয়টা যখন ট্রেন্ড ছিলো না, তখনই অনুপ্রেরণার ফেরিওয়ালা হয়ে ছিলেন এই জিম রন।

“তোমার যদি কোনকিছু করতে আসলেই ইচ্ছা হয়, তাহলে তুমি সেটা করে ফেলার কোন না কোন উপায় খুঁজে নেবেই। আর যদি করার ইচ্ছা না থাকে, তাহলে বানিয়ে ফেলবে অজুহাত!”

১০ মিনিট স্কুলের পক্ষ থেকে তোমাদের জন্য আয়োজন করা হচ্ছে অনলাইন লাইভ ক্লাসের! তা-ও আবার সম্পূর্ণ বিনামূল্যে!

১০। রুমীর আরেকটা উক্তি দিয়ে শেষ করি। এই ভদ্রলোকের প্রভাব আমার জীবনে সাংঘাতিক, উনার এক দুইটা উক্তি না দিলে লেখা শেষ করি কী করে?

“ধ্বংসাবশেষের মধ্য থেকেই কিন্তু গুপ্তধনের খোঁজ মেলে!”

এই উক্তিটা আমার জীবনে কাজে লাগিয়ে দেখলাম, আসলেই জীবন সুন্দর হয়ে যায়। তোমার জীবনটা ধ্বংসের পথে এগিয়ে যাচ্ছে? চিন্তা করে দেখো জীবনের এই ধ্বংসাবশেষের মধ্যে সুন্দর বিষয়গুলো কী ছিলো। সেই বিষয়গুলো নিয়েই আবার এগিয়ে যাও, ফিনিক্সের মতো জ্বলে ওঠো ছাই থেকেই!

হ্যাঁ, এটা সত্যি যে এসব উক্তি, মোটিভেশন, অনুপ্রেরণা- এগুলোয় সবসময় কাজ হয় না কোন। কিন্তু এক দুইটা উক্তি একদম হৃদয়ে গেঁথে যায়, জীবনের একটা অংশ হয়ে যায় তখন তারা। এমন উক্তির তাই জুড়ি মেলা ভার!


১০ মিনিট স্কুলের লাইভ এডমিশন কোচিং ক্লাসগুলো অনুসরণ করতে সরাসরি চলে যেতে পারো এই লিঙ্কে: www.10minuteschool.com/admissions/live/

১০ মিনিট স্কুলের ব্লগের জন্য কোনো লেখা পাঠাতে চাইলে, সরাসরি তোমার লেখাটি ই-মেইল কর এই ঠিকানায়: write@10minuteschool.com

লেখাটি ভালো লেগে থাকলে বন্ধুদের সঙ্গে শেয়ার করতে ভুলবেন না!
What are you thinking?