মনোযোগ বাড়ানোর দারুণ ১০টি অ্যাপ!

পুরোটা পড়ার সময় নেই ? ব্লগটি একবার শুনে নাও !

স্মার্টফোন এবং মোবাইলকে অনেক সময় মনোযোগের চরম বিঘ্ন ঘটানো যন্ত্র হিসাবে বিবেচনা করা হয়। চিত্তবিনোদনের এত পন্থা এদের মাঝে আছে যে এক মুহূর্তও এদের ছাড়া আমাদের চলে না।

কিছু কিছু অ্যাপস আমাদের ধৈর্যের চরম পরীক্ষা নেয়। তবে এমন কিছু অ্যাপও আছে, যেগুলো আমাদের মনোযোগ বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। আজকের লেখায় এমন ১০টি অ্যাপস নিয়েই আলোচনা করবো।

খুব সহজেই মার্কেটিং শিখে নাও আমাদের এই মার্কেটিং প্লে-লিস্টটি  থেকে!

১। Focus Booster:

Focus Booster মূলত পোডোমোরো টেকনিকের ওপর ভিত্তি করে তৈরি করা একটি সময় ব্যবস্থাপনা পদ্ধতি। একটি কাজের জন্য প্রয়োজনীয় সময়কে পোডোমোরো সুবিধাজনক ভাগে ভাগ করে।

এপটি বিভিন্ন ধরণের কাজে পটু। এর মাধ্যমে কাজ করা অথবা বিশ্রামের জন্য সময় নির্ধারণ থেকে শুরু করে গ্রাফের মাধ্যমে তোমার সারাদিন কেমন গেল, তার বিস্তারিত বর্ণনা তোমাকে দেবে। এই তথ্যগুলির ভিত্তিতে তুমি তোমার ভবিষ্যৎ দিনগুলির পরিকল্পনা তৈরি করতে পারবে।

২। Forest:

Forest একটি অসাধারণ অ্যাপ। এই অ্যাপটি একটি অধ্যবসায় পরীক্ষক হিসেবে কাজ করে। অ্যাপটি চালু করার সাথে সাথে এক ভার্চুয়াল গাছ বেড়ে উঠতে শুরু করে। পর্যায়ক্রমে, তোমার অধ্যবসায়কে শক্তি হিসেবে ব্যবহার করে একটি বন বেড়ে উঠবে।

ঘুরে আসুন: সাবলীল বক্তা হওয়ার জন্য দশটি কার্যকরী উপদেশ

এটি যখন কাজ করবে, তখন তোমাকে স্মার্টফোন বা মোবাইল ব্যবহার থেকে বিরত থাকতে হবে। কারণ, এগুলো ব্যবহার করলেই গাছটি মরে যাবে।

এটি একটি অভিনব পন্থা। তবে অ্যাপটির জনপ্রিয়তা বুঝিয়ে দেয় যে এই পন্থাটি কার্যকরী।

৩। Headspace 2.0:

Headspace 2.0 একটি অত্যন্ত জনপ্রিয় মেডিটেশনমূলক অ্যাপ। তবে এই অ্যাপটিতে কোন ধর্মীয় বা আত্মিক বিষয় নেই, বরং এই অ্যাপটির মাধ্যমে যোগব্যায়ামের বিভিন্ন উপযোগিতা লাভ করা যাবে।

অধ্যবসায়ে সাহায্য করা ছাড়াও যোগব্যায়াম মানুষের রাগ কমায়, স্মরণ শক্তি বৃদ্ধি করে এবং সঠিক সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। এজন্যই হেডস্পেস নিজেদের এক ধরণের মনের ব্যায়ামাগার হিসেবে তুলে ধরে।

৪। Panda Focus Mode:

Panda Focus এমন একটি অ্যাপ যা তোমার ব্রাউজারে নতুন উইন্ডো খুলতে গেলেই তোমাকে তোমার বাকি থাকা কাজের একটি তালিকা দেখাবে। ফেলে রাখা কাজের তালিকা দেখলেই সেগুলো তোমার ভাবনার কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হবে।

মনোযোগ বৃদ্ধি করার মাধ্যমে তুমি তোমার দক্ষতা বহুগুণে বাড়াতে পারবে।

৫। Noisli:

Noisli এমন একটি অ্যাপ যা বিভিন্ন ধরণের সুমধুর শব্দ এবং সঙ্গীত দিয়ে মানুষের মনোযোগ বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। এই অ্যাপটির মাধ্যমে পছন্দের শব্দের একটি তালিকা তৈরি করা যায় যার ফলে কাজ করার সময়ে যথাসম্ভব প্রশান্তি বিরাজ করে।

মজায় মজায় ইংরেজি শিখ!

তোমার স্বপ্নের পথে পা বাড়ানোর ক্ষেত্রে তোমার ইংরেজির জ্ঞান কার্যকরী ভূমিকা রাখতে পারে!

তাই আর দেরি না করে, আজই ঘুরে এস ১০ মিনিট স্কুলের এই এক্সক্লুসিভ প্লে-লিস্টটি থেকে!

১০ মিনিট স্কুলের ইংরেজি ভিডিও সিরিজ

কিন্তু সুমধুর সঙ্গীত ঠিক কীভাবে তোমার কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি করে? খালি চোখে বরং মনে হয়, সুমধুর সঙ্গীত শুনে তো একঘেয়েমি এসে পড়ার কথা!

ঘুরে আসুন: Communication Skill গড়ে তোলার সহজ উপায়!

প্রকৃতপক্ষে শ্রুতিমধুর সঙ্গীত বিভিন্নভাবে তোমার আত্ননিয়ন্ত্রণ এবং মনোযোগ বৃদ্ধি করে। সাধারণত শব্দ বিভিন্ন দিক এবং বিভিন্ন দূরত্ব থেকে আসে। শ্রুতিমধুর শব্দ একটি ধারাবাহিক শব্দ উৎপন্ন করে যা সাধারণত পরিবর্তিত হয় না। এর ফলে বর্তমানের ওপর মনোযোগ দেয়া সহজ হয়।

তাছাড়াও, শ্রুতিমধুর শব্দ একটি নতুন মানসিক পরিবেশ তৈরি করে।

৬। Noizio:

Noizio এমন একটি অ্যাপ যা বিভিন্ন ধরণের সুমধুর শব্দ উৎপন্ন করে থাকে। সুমধুর শব্দ মানুষকে মনোযোগী হতে সাহায্য করে। এজন্য এই অ্যাপটি কার্যকর। এই অ্যাপটি অ্যাপল পণ্যের জন্য সীমাবদ্ধ।   

৭। Brain.FM:

Brain.FM পূর্বের দুইটি অ্যাপের মতই সঙ্গীত ব্যবহার করে তোমাকে মনোযোগী হতে সাহায্য করে। তবে এখানে সঙ্গীতটি কৃত্তিমভাবে তৈরি এবং তোমার মনোযোগ বৃদ্ধি করার জন্যই তৈরি করা হয়েছে।

এই অ্যাপে বিভিন্ন চ্যানেল রয়েছে বিভিন্ন কাজ করতে তোমাকে সাহায্য করার জন্য। যেমনঃ কাজ করা, ঘুমানো ইত্যাদি।

যদিও এই অ্যাপের সঙ্গীত কম্পিউটার দিয়ে তৈরি, তবুও সেই সঙ্গীত এমনভাবে তৈরি করা হয়েছে যেন তোমার মনোযোগ বেড়ে যায়।

৮। Freedom:

Freedom এমন একটি অ্যাপ যার জনপ্রিয়তা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। এটি খুবই সাধারণ কিন্তু কার্যকর একটি অ্যাপ। এই অ্যাপটি নির্দিষ্ট প্রোগ্রাম, অ্যাপ, এমনকি ব্রাউজার থেকেও তোমাকে ব্লক করে রাখে। ফলশ্রুতিতে, তোমার কাজে মনোযোগ বজায় থাকে।

এই অ্যাপটি বিভিন্ন ধরণের ডিভাইসে ব্যবহার করা যায়। এজন্যই এই অ্যাপটি একই ধরণের অন্যান্য অ্যাপ থেকে অধিক কার্যকর।

৯। Hocus Focus:

এই অ্যাপটি যেই অ্যাপগুলো ব্যবহারে নেই, সেগুলোকে লুকিয়ে রেখে গুরুত্বপূর্ণ কাজের সময়ে অকারণে সেগুলো ব্যবহারে তোমাকে নিরুৎসাহিত করে।

বিভিন্ন উপায়ে অ্যাপটি কাজ করে। হোকাস ফোকাস কোন অ্যাপ থেকে সরে আসার পরমুহূর্তেই তাকে লুকিয়ে ফেলতে পারে অথবা কয়েক মিনিট পর তাকে লুকিয়ে ফেলতে পারে। এটি ব্যবহারকারীর পছন্দের ওপর নির্ভর করে।

ফিন্যান্সের অলিগলি থেকে ঘুরে এসে জেনে নাও একটু গোলমেলে কিন্তু দারুণ মজার এই বিষয়টিকে!

১০। Self Control:

পূর্বের সকল অ্যাপই কোমলভাবে পরিবার বা বন্ধুর মত করে তোমার মনোযোগ বাড়ানোর প্রচেষ্টা করতো। কিন্তু এই অ্যাপটি তোমার ইস্পাত কঠিন শারীরিক শিক্ষা শিক্ষকের মত তোমাকে জোরপূর্বক কাজ করিয়ে নেবে।

অনেক অ্যাপ রয়েছে, যেগুলো নির্দিষ্ট সময়ের জন্য তোমাকে মনোযোগী হতে সাহায্য করার চেষ্টা করে। কিন্তু এই অ্যাপটির পার্থক্য হচ্ছে যে অ্যাপটি বন্ধ করা যায় না।

অ্যাপটি মুছে ফেললে অথবা কম্পিউটার বন্ধ করলেও এটি চলতে থাকে। এজন্য এই অ্যাপটিকে বন্ধ করার একমাত্র উপায় হচ্ছে অপেক্ষা করা এবং অ্যাপটির সময় শেষ হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করা। অ্যাপটি এভাবেই কঠোর নিয়মানুবর্তিতা এবং মনোযোগ নিশ্চিত করে।

মনোযোগ বৃদ্ধি করার মাধ্যমে তুমি তোমার দক্ষতা বহুগুণে বাড়াতে পারবে। এজন্য দেরি না করে উপরের অ্যাপগুলো ব্যবহার করা শুরু করে দাও!


১০ মিনিট স্কুলের লাইভ এডমিশন কোচিং ক্লাসগুলো অনুসরণ করতে সরাসরি চলে যেতে পারো এই লিঙ্কে: www.10minuteschool.com/admissions/live/

১০ মিনিট স্কুলের ব্লগের জন্য কোনো লেখা পাঠাতে চাইলে, সরাসরি তোমার লেখাটি ই-মেইল কর এই ঠিকানায়: [email protected]

লেখাটি ভালো লেগে থাকলে বন্ধুদের সঙ্গে শেয়ার করতে ভুলবেন না!
What are you thinking?