পৃথিবীর অদ্ভুত যত আইন

বিবিধ [Fetching...]

আইন রাষ্ট্র চালানোর জন্য অপরিহার্য। দেশ পরিচালনার জন্য শুধু আইন প্রণয়ন করতেই গঠিত হয় আইন সভা। ধারণা করা হয় প্রথম লিখিত আইন রচিত হয়েছিলো ব্যবলনীয় সভ্যতায় হাম্বুরাবির হাত ধরে। যেটাকে বলা হয় হাম্বুরাবি কোড। এরপর রোমে লিখিত আইন নিয়ে বেশ কাজ হয়েছে। যুগে যুগে আইন পেয়েছে বৈচিত্র্য। মাঝেমাঝে আইন হয়ে উঠেছে এতটাই বৈচিত্র্যময় যে জানলেই চক্ষু চড়কগাছে উঠবে। কোনো দেশে চুইংগাম কেনা নিষেধ, আবার কোনো দেশে শুধু একটি গোল্ডফিশকে জারে রাখা যাবে না। কোনো কোনো দেশ আবার বলেই দিয়েছে ৫০ কেজির বেশি আলু কেনা যাবে না কখনোই!

এরকম অদ্ভুত সব আইন দেখে নিশ্চয়ই তোমাদের মাথা ঘুরাচ্ছে! তাহলে এবার বলি, এমন একটা দেশ আছে যেখানে কোনো ছেলে যদি কোনো মেয়েকে ডেটে যাওয়ার অফার করে তাহলে মেয়েটি নিষেধ করতে পারবে না। এতটুকুতেই হয়তো তোমাদের অনেকের আক্কেলগুড়ুম অবস্থা, কিন্তু তা হলে চলবে না।  কারন এখন আমরা দেখব বিশ্বজুড়ে এরকম অদ্ভুত ৩০ টি আইন যে সব আইনের কথা শুনলে বিশ্বাস করতে চাইবে না অনেকেই!

১) তুমি যদি কখনো সুইজারল্যান্ড যেতে চাও তাহলে এই দুঃসংবাদটি তোমার জন্য। তুমি সুইজারল্যান্ডে কখনোই রাত দশটার পরে কমোড ফ্ল্যাশ করতে পারবে না। সুইজারল্যান্ড সরকার রাত দশটার পরে ফ্ল্যাশ করাকে শব্দ দূষণ হিসেবে ধরে। এর মানে যদি বেশ শক্তিশালী অন্ত্র নিয়ে তোমার সুইজারল্যান্ড ভ্রমনে যেতে হবে!

২) অনেকেই তো আছে অনেক ভুলো মনা! অনেকে আবার কারো জন্মদিনে মনে রাখতে পারে না। সেক্ষেত্রে তোমার জন্য সমস্যা হতো যদি তুমি সামোয়ার অধিবাসী হতে। কেননা সামোয়াতে স্ত্রীর জন্মদিন ভুলে যাওয়া বেআইনি! ধরো একদিন তুমি বাসায় ফিরে দেখলে দরজায় পুলিশের গাড়ি। এবং তারা তোমাকেই নিতে এসেছে! পুলিশ অফিসার বললেন, ‘মিস্টার, ইউ আর আন্ডার এ্যরেস্ট। কারন এবছর আপনি আপনার স্ত্রীর জন্মদিন ভুলে গেছিলেন।’ কি ভয়ঙ্কর!

দারুণ সব লেখা পড়তে ও নানা বিষয় সম্পর্কে জানতে ঘুরে এসো আমাদের ব্লগের নতুন পেইজ থেকে!

৩) অস্ট্রেলিয়াতে তুমি কখনোই ৫০ কেজির বেশি আলু সংরক্ষণে রাখতে পারবে না অথবা কিনতেও পারবে না। ধরো তুমি ট্রাক বোঝাই করে সবজি নিয়ে যাচ্ছো, পথেই হামলে পড়লো পুলিশ। কেন? চেক করে দেখবে তোমার ট্রাক। যদি ৫০ কেজির বেশি আলু থাকে, তবে তুমি এবার জেলে। উদ্ভট, না?

ঘুরে আসুন: সফল মানুষেরা যেই ১০টি অভ্যাস মেনে চলেন প্রতিদিন 

৪) তোমাদের মধ্যে অনেকেই আছে চুইংগাম অনেক পছন্দ করো। তাহলে এবারের আইনটা তোমাদের জন্য। সিঙ্গাপুরে এরকম আইন রয়েছে যে তুমি কখনোই চুইংগাম চিবোতে পারবে না! কখনও সিংগাপুরে গিয়ে চুইংগাম চিবোতে শুরু কোরো না কিন্তু। জেল হয়ে গেলে আমি দায়ী নই!

৫) পুরো বিশ্বেই ডিভোর্স রেট এখন প্রচন্ড বেশি। তা শুধুমাত্র দুটি দেশ ছাড়া। এ দুটি দেশে আসলে ডিভোর্স দেয়াটাই বেআইনি। তোমার পার্টনারের সাথে যদি বনিবনা না হয়, তারপরও তোমাদের একই সাথে থাকতে হবে! এই দেশ দুটি হল, ভ্যাটিকান ও ফিলিপাইনস।

৬) ধরো থাইল্যান্ডের চকমকে রাস্তায় তুমি হাঁটছো। এমন অবস্থায় একটা বাথের (থাইল্যান্ডের কারেন্সি) ওপর পা পড়ে গেলো। সাথে সাথে সাইরেন বাজিয়ে পুলিশ হাজির। কেন? এমা! থাইল্যান্ডে যে কারেন্সির ওপর পা ফেলা নিষেধ!

৭) এক জারে একটা গোল্ডফিশ পুষবে ভাবছো? এ কেমন কথা? তুমি তো একদমই বর্বর! হ্যা, তোমাকে অন্তত দুটি বা তার বেশি গোল্ডফিশ পুষতে হবে। এটাই রোম আর সুইজারল্যান্ডের আইন!

৮) সন্ধ্যেবেলা বিচে হাঁটতে হাঁটতে সুর ভাজতে ইচ্ছা করতে পারে অনেকেরই! তাও যদি হয় হাওয়াই এর হনুলুলু, তবে তো কথাই নেই! কিন্তু ওহে, সুরটা একটু নিচে! কেননা সেখানে যে সূর্যাস্তের পরে জোরে গান গাওয়াটাই ব্যানড!

৮) বিচ পর্যন্ত যখন এসেই গেছি, এবার সমুদ্রে নামা যাক। পর্তুগালে কখনোই তুমি সমুদ্রে পি করতে পারবে না। করলে পরিনাম কি হবে, তা আর নাই বলি।

৯) উইনিহ দা পুহ অনেকেরই প্রিয় ক্যারেক্টার। কিন্তু পোল্যান্ড অধিবাসীদের না। কেননা, পুহ পোল্যান্ডে ব্যানড! পুহ সম্পর্কিত যেকোনো প্রডাক্টও। মানে, পোল্যান্ডের সীমানার মধ্যে তুমি কখনোই পুহ এর কথা তুলতে পারবে না!

১০) মেক্সিকোতে সাইকেল চালাতে হয় প্রচন্ড সতর্ক হয়ে। কেননা মেক্সিকোতে সাইক্লিং করার সময় হেলমেট পড়া বেআইনি। অদ্ভুত!

১১) মালদ্বীপের মুসলিম জনগোষ্ঠী খুব কঠোর ভাবে ব্যান করে রেখছে ইসলামিক বই বাদে অন্য কোনো বই পড়া। এমনকি তুমি যদি ট্যুরিস্ট হও তাহলে নিজের ধর্মগ্রন্থ ছাড়া কোনো বই সাথে নিতে পারবে না। আর যদি নিয়েই ফেলো, খবরদার, কোথাও সেই বই খোলা অবস্থায় ফেলে রেখো না!

১২) বেশিরভাগ আমোরিকানরা কাঁঠাল সম্পর্কে জানেন না। কিন্তু কাঁঠালের গন্ধ সম্পর্কে তারা ঠিকই অবগত! তাই, কাঁঠাল স্ন্যাক হিসেবে নেয়া নিষেধ বিভিন্ন জায়গায়! সাউথ এশিয়ানদের প্রতি এটা একটা অন্যায়ই বটে!

১৩) এই আইনটা বেশ আশ্চর্যের! তুমি যদি বিবাহিতা হও এবং রোববারে স্কাই ডাইভিং করতে যাও এবং সেটা যদি ফ্লোরিডায় হয়, তবে তোমাকে অবশ্যই জেলে ঢুকতে হচ্ছে। মানে, ফ্লোরিডাতে বিবাহিতা মেয়েদের রোববারে স্কাই ডাইভিং নিষিদ্ধ!

১৪) কিছু কিছু নাম বেশ কনফিউজিং। শুনে বোঝা যায় না ছেলে নাকি মেয়ে! এবং এরকম ঝামেলা থেকেই হয়ত জার্মান সরকার আইন করেছে, সন্তানের নাম এমনভাবে রাখতে হবে যেন শুনে বোঝা যায় সন্তানটি ছেলে নাকি মেয়ে!

১৫) ডেনমার্ক আবার এক্ষেত্রে এক কাঠি উপরে। তারা আবার ৭০০০ টা নামের একটা লিস্ট করেছে, এবং সন্তানের নাম অবশ্যই সেই ৭০০০ এর একটি হতে হবে!

নিজেই করে ফেল নিজের কর্পোরেট গ্রুমিং!

কর্পোরেট জগতের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে গেলে জানতে হয় কিছু কৌশল।

এগুলো জানতে ও শিখতে তোমাদের জন্যে রয়েছে দারুণ এই প্লে-লিস্টটি!

১০ মিনিট স্কুলের Corporate Grooming সিরিজ

১৬) তুমি বিবাহিতা? তবে বলিভিয়াতে তুমি কখনোই এক গ্লাসের বেশি ওয়াইন পান করতে পারবে না! শুধুমাত্র বিবাহিতা হওয়ায় পানের ওপর এ ট্যাবু কেন তা কেবল বলিভিয়ার সরকারই জানেন।

১৭) মাঝেমধ্যেই বাথরুমের বাল্ব ফিউজ হয়ে যায়। তারপর আমাদের নতুন বাল্ব কিনে আগের বাল্বটি সরিয়ে ফেলতে হয়। বাল্ব পরিবর্তনের জন্য অবশ্যই ইলেকট্রিশিয়ান হতে হয় না। তবে তুমি যদি অস্ট্রেলিয়ার ভিক্টোরিয়াতে থাকতে তবে তোমাকে একটা লাইট বাল্ব পরিবর্তন করতেও প্রফেশনাল ইলেকট্রিশিয়ান হতে হতো!

১৮) হাসিমুখ দেখতে কার না ভালো লাগে? মাঝেমধ্যে তো বলাই হয়, ‘You are never properly dressed without a smile.’ কি জানি! হয়ত ইতালির মিলানে এজন্যই সবসময় হাসিমুখে থাকাটাই একটা আইন হয়ে গেছে। শুধুমাত্র ফিউনারেল এবং হাসপাতাল বাদে মিলানের রাস্তায় তোমাকে হাসিমুখে থাকতে হবেই।

১৯) তুমি জাস্টিন বিবার এর ফ্যান? তবে তোমার কানাডা ভ্রমন করা উচিত। ভ্রমণের সময় রেডিওটিও অন রেখো। তাহলে প্রতি পাঁচটা গানের একটিতে জাস্টিনের গান শুনতে পারবে। কেন? কারন কানাডাতে এমন আইন রয়েছে যে রেডিওতে সম্প্রচারিত পাঁচটা গানের মধ্যে অন্তত একটি কানাডিয়ান তারকার হতেই হবে!

২০) কখনও ভেবে দেখেছো কি জাপানের মানুষ এত শুকনো কেন? পুরো পৃথিবীতে যেখানে স্থুলতার গড় হার যখন ৩৩% জাপানে তখন মাত্র ৩%। কেন জাপানের মানুষ এতটাই স্বাস্থ্য সচেতন? কারন, জাপানে ২০০৯ সালে ওভারওয়েট হওয়া নিষিদ্ধ করে দিয়েছে। আইন অনুসারে, চল্লিশ বয়সের ওপরে পুরুষদের কোমড় ৩১ ইঞ্চি, মহিলাদের কোমর ৩৫ ইঞ্চি পর্যন্ত হতে পারবে। এর বেশি হলেই সাজা! আমি ভাবছি ওভারওয়েট হওয়ার শাস্তি কি হতে পারে? রোজ বারো ঘন্টা জিম?

২১) প্যারিসের আইফেল টাওয়ার সম্পর্কে জানেন না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া দুর্লভ। ট্যুরিস্টদের আকর্ষণ এই আইফেল টাওয়ার। কিন্তু কজন জানে যে রাত্রেবেলা আইফেল টাওয়ারের ছবি তোলা বেআইনি?

২২) এই আইনটা আবার হাওয়াই কে ঘিরে। প্রচারনার জন্য বিলবোর্ড বেশ গুরুত্বপূর্ণ একটি অনুষঙ্গ। প্রায় সব দেশেই কমবেশি বিলবোর্ড দেখা যাবে। কিন্তু হাওয়াই নামের ভূস্বর্গে কোনো বিলবোর্ড থাকবে না। এমনটাই আইন রয়েছে।

২৩) মিসিসিপি! সেকেন্ড গোনার জন্যে অভিনব কায়দা। কারন ‘মিসিসিপি’ বলতে যতটুকু সময় লাগে সেটাই আসলে এক সেকেন্ড। এই মিসিসিপিতেই একটা আইন আছে, যে দুই বা তার চেয়ে বেশি সংখ্যাক লোকের সামনে গালি দেয়া যাবে না। দিলে, তুমি জেলে! আমার যে বন্ধুটির মুখ সবচে খারাপ, আমি তাকে মিসিসিপিতে রেখে আসতে চাই।

২৪) কখনও কি তুমি আইকিউ এর ভিত্তিতে মানুষ জাজ করেছো? তুমি কি আদৌ জানো তোমার আইকিউ কত? তুমি না জানলেও নিউ মেক্সিকো এ ব্যাপারে বেশ উৎসাহী। আইকিউ ত্রিশের নিচে কোনো ব্যাক্তি নিউ মেক্সিকোতে ভোটাধিলার পায় না।

সঠিকভাবে কোন ইংরেজি শব্দ উচ্চারণ করতে পারা ইংরেজিতে ভাল করার জন্য অত্যন্ত জরুরি।

২৫) পেনিসেলভিনিয়া। ড্রাকুলার আবাসস্থল বলে খ্যাত। সেখানে আদৌ কাউন্ট ড্রাকুলা থাকেন কিনা তা নিয়ে পরে কথা হবে। এখন কথা হোক পেনিসেলভিনিয়ার একটা অন্যরকম আইন নিয়ে। শিশু দত্তক দেয়া বা নেয়া সেখানে আইনত নিষিদ্ধ।

২৬) টেক্সাসে চাকরি পেতে হলে তোমাকে অবশ্যই সৃষ্টিকর্তার ওপর বিশ্বাস থাকতে হবে। তুমি যদি সৃষ্টিকর্তায় বিশ্বাস না করো তাহলে টেক্সাসের সংবিধান অনুযায়ী তুমি কোনো চাকরি পাবে না।

ঘুরে আসুন: লেখাপড়ার মাঝেও বিনোদন? কি করে সম্ভব?

২৭) রাস্তায় যখন তখন থুথু ফালানোর অভ্যাস আছে? পরিবর্তন করো। এটা খুবই অস্বাস্থ্যকর। তাছাড়া, আরিজোনাতে এটা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। ধরা পড়লে হবে ২৫০০ ডলার জরিমানা!

২৮) আমেরিকার ইন্ডিয়ানাতে যদি তুমি কোনো কালো বিড়াল পুষতে চাও, অবশ্যই তার গলায় তোমাকে ঘন্টা বাঁধতে হবে। ‘মেও এর গলায় ঘন্টা বাঁধবে কে?’ প্রবাদটির একদম বাস্তব প্রয়োগ। না?

২৯) বাংলাদেশে থেকেও এদেশের আইন সম্পর্কে কতটুকু জানো? ১৫ বছরের উপরের কোনো ছাত্রের পরীক্ষায় নকল করা আইনত নিষেধ। এবং এ অপরাধে জেলে পর্যন্ত নেয়ার বিধান আছে। হাস্যকর, না?

৩০) নরওয়ের এই আইনটা বেশ মজার। কোনো গৃহপালিত পশুর স্পে করানো যাবে না নরওয়েতে। নিশ্চয়ই এবার অনেকে ভাবছো, তাহলে নরওয়েতে বিড়াল বা কুকুরের জন্মহার নিয়ন্ত্রন কিভাবে হয়? সত্যি কথা বলতে আমিও তাই ভাবছি।

পড়ে ফেললে বিশ্বজুড়ে চালু থাকা ৩০ টি উদ্ভট আইন। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই অপ্রয়োজনীয় কিন্তু মজাদার এই আইনগুলো থেকে আমরা বিভিন্ন দেশে চলা অদ্ভুত রিতি সম্পর্কে জানতে পারি। কখনও এসব দেশ ভ্রমণে গেলে কাজে লাগবে এই জ্ঞানগুলো।

তথ্যসূত্র-

১) https://thoughtcatalog.com/rachel-hodin/2013/10/67-ridiculous-laws-from-around-the-world-that-still-actually-exist/

২) https://www.thedailymeal.com/travel/weirdest-laws-your-state

৩) https://www.rd.com/funny-stuff/dumbest-laws-america/

৪) https://www.google.com/amp/s/amp.businessinsider.com/weird-state-laws-across-america-2018-1

৫) https://www.dailymail.co.uk/travel/travel_news/article-2856346/It-illegal-not-smile-Milan-no-donkeys-sleep-bath-Oklahoma-strangest-laws-word.html


১০ মিনিট স্কুলের লাইভ এডমিশন কোচিং ক্লাসগুলো অনুসরণ করতে সরাসরি চলে যেতে পারো এই লিঙ্কে: www.10minuteschool.com/admissions/live/

১০ মিনিট স্কুলের ব্লগের জন্য কোনো লেখা পাঠাতে চাইলে, সরাসরি তোমার লেখাটি ই-মেইল কর এই ঠিকানায়: write@10minuteschool.com

লেখাটি ভালো লেগে থাকলে বন্ধুদের সঙ্গে শেয়ার করতে ভুলবেন না!
Author
Meher Afroze Shawly

Meher Afroze Shawly

Meher Afroze Shawly, a free soul to a very great degree, who is in immense love with books, soft music, coffee and with darkness too as she has two light sensitive eyes. Most often she lives in her cave (actually a very dark room) alone evading human gathering. You will find her kind, sarcastic and again sometimes rude, sadistic and annoying, but trust me, you will never find that weirdo geek boring.
Meher Afroze Shawly
এই লেখকের অন্যন্য লেখাগুলো পড়তে এখানে ক্লিক করুন
What are you thinking?