ভুল শুধরে নেবে যেভাবে

ছোটবেলায় তুমি যদি কোন ভুল কর, তোমার লেখাগুলো পেন্সিল দিয়ে লেখার কারণে মুছে ফেলার সুযোগ থাকে, তোমার কাছে সবসময় রাবার থাকে। কিন্তু তুমি যখন বড় হয়ে কলম ধর ভুলগুলো মুছে ফেলার সুযোগ নেই, তোমাকে কেটে ঠিক করতে হবে।

এখন প্রশ্ন হল, কেটে ঠিক করাকে কেন এতটা ইতিবাচক হিসেবে নেয়া হবে? তোমার দৃষ্টিভঙ্গিকে বদলে দেয়া যাক। জীবনের সবগুলো ভুলগুলো কোন না কোন কারণেই হয়ে থাকে। ভুল হওয়াটাই স্বাভাবিক। তবে, ভুল হওয়াটাই কি সবকিছুর শেষ? অবশ্যই না! জীবনে ভুল হবেই, তবে ভুল করার পরে সেটাকে তোমার সেই অধ্যয়ের শেষ লাইন হতে দেয়া যাবে না কোন ভাবেই।

কিছু উদাহরণ দিয়ে বোঝানো যাক –

হাল ছেড়ো না 

জীবনের পথে আমরা সবাই এমন পরিস্থিতির সম্মুখীন হয়েছি, যেখানে নিজেকে পথহারা মনে হয়েছে, যখন মনে হয়েছে হয়ত নিজের ঠিকানায় ফেরার তা খুঁজে বের করতে। কিছু ভুল পথে গিয়ে হয়ত তোমার মনে হতে পারে যে তুমি হারিয়ে গেছ। পথ যেন ভুলে গিয়েছ। চিন্তা করে দেখ, তুমি যখন কোন নতুন ঠিকানা বা নতুন কোন জায়গায় যাও, তোমার কিছু সময় লাগে। কিছু ভুল পথই কিন্তু তোমাকে আবার সঠিক পথে ফিরিয়ে আনে।

সঠিক পথে ফিরে আসার আগে কি তুমি থেমে থেকেছ কখনো? পথভ্রষ্ট হবার পরেও তো তুমি চেষ্টা ছেড়ে দাও না, তাই না? তবে জীবনের ক্ষেত্রেও তবে তা হবে না কেন? যদি চেষ্টা ছেড়ে দিতে তবে তোমার গন্তব্যতে কখনো পৌঁছানো সম্ভব হত না। জীবনের ভুলগুলোকে তোমার এভাবে দেখা শিখতে হবে, যেন ভুলগুলোকে শুধরানোর আগে তুমি যেন হাল না ছাড়।  

গ্রাফিক্স ডিজাইনিং, পাওয়ারপয়েন্ট প্রেজেন্টেশান ইত্যাদি স্কিল ডেভেলপমেন্টের জন্য 10 Minute School Skill Development Lab নামে ১০ মিনিট স্কুলের রয়েছে একটি ফেইসবুক গ্রুপ।

ভুল থেকে শেখো 

অংক করার সময় ভুল আমাদের সবারই হয়, তাই না? জীবনকে গণিতের সাথে তুলনা করতে শিখতে হবে, তবে অনেক কিছু শেখা যাবে। তুমি যদি সরল অঙ্ককে ঠিকভাবে না করেই সমাধান করতে চাও তবে তার উত্তর কিন্তু মিলবে না। প্রতিটি ধাপ তোমাকে সঠিকভাবে সমাধান করতে হবে, তবেই তোমার ক্ষেত্রে অঙ্কটি সমাধান করা সম্ভব হবে।

ঘুরে আসুন: প্লেটোর ৫টি অসাধারণ জীবন শিক্ষা

গণিত বইয়ে যেমন কেবল একটি অঙ্ক থাকে না তেমনি তোমাকেও জীবনে অনেক সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে। সমস্যার সম্মুখীন হওয়ার ক্ষেত্রে কখনও তোমার ভুল হয়ে যেতে পারে, কিন্তু তুমি যতটা ভুল করবে তার থেকেই তুমি শিখতে পারবে।

ভুল থেকে শিক্ষা অর্জন করেই তুমি নিজেকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবে। শুধু মনে রাখতে হবে, অঙ্ক করার ক্ষেত্রে যেমন আমাদের ভুল হতে পারে, ঠিক তেমনি আমাদের জীবনের ক্ষেত্রেও ভুল হতেই পারে, তবে সেটা শুধরে নিয়ে আমাদেরকে শিক্ষা অর্জন করতে হবে যেন একই ভুল আবার না হয়।

“It is unwise to be too sure of one’s own wisdom. It is healthy to be reminded that the strongest might weaken and the wisest might err.”

-Mahatma Gandhi

ভুলকে মেনে নাও 

চিন্তা করে দেখ, তোমার জীবনের প্রতিটি মানুষ কিন্তু তোমার ভাল বয়ে আনেনি, তিক্ত সত্য হলেও এটাই বাস্তবতা যে কিছু মানুষ তোমার জীবনে উল্টা অনেক নেতিবাচক প্রভাব ফেলেছে। কিন্তু, এভাবে চিন্তা করে দেখ, তাদের উপস্থিতি যদি একেবারেই না থাকত তবে তুমি কি সঠিক মানুষগুলোকে চিনতে পারতে? এটা সম্ভব নয়। সুতরাং, তোমাকে মেনে নিতে হবে কিছু অপ্রীতিকর অভিজ্ঞতা তোমাকে অনেক কিছু শেখাতে বাধ্য করে যা তোমার জীবনে অনেকটা ইতিবাচক প্রভাব ফেলে।

জীবনে ভুল হওয়াটাই স্বাভাবিক, তবে ভুল হওয়ার পরে আমাদের কর্তব্য তা কী? কোনো ভুল হওয়ার পরে সেখান থেকে শিক্ষা গ্রহন না করা শিখি তবে ভুলগুলো ভুলই রয়ে যাবে। কোন ভুল হওয়ার পরে আমাদের মনে স্বভাবতই প্রশ্ন জেগে উঠে, “কেন আমার সাথে এমনটা হল?” “দোষটা কি আমার ছিল?” আরও অনেক প্রশ্ন মাথায় ঘুরপাক খেতে থাকে। এখানে করণীয় কী হতে পারে? ভুলটাকে আমি কিভাবে শুধরে নিতে পারব?

দেখে নাও ক্যারিয়ার প্ল্যানিং এর খুঁটিনাটি!

আমাদের ছোট-বড় অনেকরকম স্বপ্ন থাকে। কিন্তু বাস্তবায়ন করতে পারি কতগুলো?

এই দ্বিধা থেকে মুক্তি পেতে চল ঘুরে আসি ১০ মিনিট স্কুলের এই এক্সক্লুসিভ প্লে-লিস্ট থেকে!

লাইফ হ্যাকস সিরিজ!

যখন এই প্রশ্নগুলো মাথায় ঘুরবে তখন অন্য প্রশ্ন দ্বারা এই প্রশ্নগুলোকে প্রতিস্থাপন করতে হবে এসব প্রশ্ন দিয়ে, “ভুলটাকে আমি কিভাবে আমি ঠিক করব?” “ভুলটার কারণ কী ছিল?” “ভুলটা ঠিক করার ক্ষেত্রে আমার করণীয় কী?” “ভুলটা থেকে আমাকে কী শিখতে হবে?”

তোমার মতো হয়ত আরেকজনের একই ভুল হতে পারে, এই ক্ষেত্রে তোমার সাথে আরেকজনের পার্থক্য কী হতে পারে? ধর, একটা পরীক্ষা খারাপ হল। এখানে তুমি যদি হাল ছেড়ে দিয়ে ধরেই নাও পরের পরীক্ষাটিও তোমার খারাপ হবে তবে তুমি হেরে যাচ্ছ। অপরদিকে, তোমার মত আরেকজন যার পরীক্ষা খারাপ হয়েছিল সে তার থেকে প্রেরণা নিয়ে যদি আর ভালভাবে পরের পরীক্ষার জন্য প্রস্তুতি নিতে থাকে, তার ভুলগুলো সম্পর্কে নিজে আর সতর্ক হয়, তবে সে আগের পরীক্ষা থেকে ভাল করতে পারবে।

পরীক্ষার উদাহরণটাকে রুপক হিসেবে ধরে নিয়ে তুমি যদি তোমার অন্যান্য ভুলগুলোর কথা চিন্তা কর; তবে তুমি বুঝতে পারবে যে ঠিক তোমার ভুলগুলোর মত পৃথিবীর কারও না কারও ভুল হয়েছে, এখানে ভুলগুলোর ক্ষেত্রে তুমি কিভাবে ঠিক করার চেষ্টা করবে তাতেই পার্থক্যটা ফুটে উঠবে। তোমার সব ভুলেরই কোন না কোন সমাধান রয়েছে।

নিজের ভুলটার কথা নয়, তোমাকে ভুলটা থেকে অর্জিত শিক্ষাটার কথাটা মাথায় গেঁথে নিতে হবে। মানুষ মাত্রই ভুল হওয়াটাই স্বাভাবিক। তবে ভুল হওয়াটাই যেন আমাদের না থামিয়ে দিতে পারে। কোন ভুল যদি তোমাকে থামিয়ে দেয়, তবে তুমি জীবন যুদ্ধে হেরে যাবেই।

So, make mistakes but don’t let it stop you from achieving greater things.

“Anyone who has never made a mistake has never tried anything new.”

-Albert Einstein

ভুল হয়ে যাবার পরে কিছু করার থাকে না, এই ধারণাটা কখনও যেন মাথায় না আসে। ভুল হতেই পারে, তবে সেটাই যেন সবকিছুর শেষ না হয় সেটা তোমাকে নিশ্চিত করতে হবে। ভুল হয়ে যাবার পরে তোমাকে কিছু জিনিস খেয়াল রাখতে হবে-

১০ মিনিট স্কুলের পক্ষ থেকে তোমাদের জন্য আয়োজন করা হচ্ছে অনলাইন লাইভ ক্লাসের! তা-ও আবার সম্পূর্ণ বিনামূল্যে!

তোমার ভুলকে গ্রহণ করে নিতে শেখো

নিজের ভুলকে নিজে স্বীকার করে নেয়া শিখতে হবে। যদি কোন ভুল হয়েই যায়, এমন যেন না হয় যে তুমি তা অস্বীকার করে বসে আছ। ভুলকে মেনে নিতে শেখো, কখনও অগ্রাহ্য করে এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করবে না। তুমি নিজে কখনো যদি নিজের ভুলকে মেনে না নিয়ে স্বীকার না কর যে আসলেই তোমার ভুল হয়েছে, তবে তুমি নিজের ভুলকে শুধরে নিতে পারবে না, ভুল থেকে শিক্ষা গ্রহণ করতে পারবে না।

ভুলটা তোমার দোষ বা কর্ম হতে পারে, তবে তোমার ব্যক্তিত্ব নয়

পৃথিবীতে এমন কেউ নেই যার কখনই কোন ভুল হয়নি! ইতিহাসের পাতায় এমন কোন উদাহরণ খুঁজে পাওয়া সম্ভব নয়। ভুল হতেই পারে, তাই বলে সেটা তোমার  ব্যক্তিত্বকে তুলে ধরতে পারে না। নিজের ভুলকে কখনো নিজের ব্যক্তিত্বের বৈশিষ্ট্য হয়ে উঠার সুযোগ করে দেবে না।

নিজের ভুলের শুধরে নেয়ার উপায় বের করে নাও

নিজের ভুলের জায়গাটা নিজে খুঁজে বের করে নিজে তা শুধরে নেয়ার চেষ্টা করতে হবে। ঠিক কোথায় তোমার ভুল হয়েছে সেটাকে খুঁজে বের করতে হবে যেন তা আবার কখনো না হয়। একই ভুল বার বার যেন না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

জীবনের একটি ইতিবাচক দিক হল, দিন যাবার সাথে সাথে নিজের জীবনের প্রতিটি ধাপ থেকেই কিছু না কিছু শেখার রয়েছে। জীবনের প্রতিটি ভুল থেকে তুমি যদি শিক্ষা নিতে পার, চিন্তা করে দেখ তোমার জীবনের পরবর্তী অধ্যায়গুলো কতটা তোমার জন্য সহজ হয়ে দাঁড়াবে। জীবনের ঘটে যাওয়া সবকিছুর পেছনেই কোন না কোন কারণ থাকে। তোমার ভুলগুলোর পেছনেও শিক্ষণীয় অনেক কিছুই লুকিয়ে রয়েছে যা তোমার নিজের খুঁজে নিতে হবে। ভুলকে ভয় পেয়ে কখনো পিছপা হলে চলবে না। ভয়কে পেছনে ফেলে নিজের ভুলগুলোকে শুধরে নিতে হবে।


১০ মিনিট স্কুলের লাইভ এডমিশন কোচিং ক্লাসগুলো অনুসরণ করতে সরাসরি চলে যেতে পারো এই লিঙ্কে: www.10minuteschool.com/admissions/live/

১০ মিনিট স্কুলের ব্লগের জন্য কোনো লেখা পাঠাতে চাইলে, সরাসরি তোমার লেখাটি ই-মেইল কর এই ঠিকানায়: write@10minuteschool.com

লেখাটি ভালো লেগে থাকলে বন্ধুদের সঙ্গে শেয়ার করতে ভুলবেন না!
What are you thinking?