Uncategorized

আদর্শ গ্যাসের সমীকরণ, গ্যাস ধ্রুবকের মান

গ্যাস পদার্থের এমন একটি অবস্থা, যা চোখে দেখা না গেলেও নিজের অস্তিত্ব আমাদেরকে জানান দেয় প্রতি মুহূর্তে।কিন্তু কিভাবে? কয়েক সেকেণ্ড নিশ্বাস বন্ধ করে রাখো তো।কি খুব কষ্ট হচ্ছে? এই কষ্টের কারণ হল গ্যাস।শরীরে প্রয়োজনীয় অক্সিজেন (O₂) না যাওয়া এবং শরীর থেকে প্রয়োজনীয় কার্বন-ডাই-অক্সাইড (CO₂) বের না হওয়ার ফলে এমনটি হচ্ছে। এ প্রক্রিয়াটির সাথেও একটি গ্যাস সূত্রের সম্পর্ক রয়েছে।

তাই গ্যাসের মত গ্যাস সূত্রগুলোও আমাদের জীবনে বিভিন্নভাবে জড়িত। গ্যাস সূত্রগুলোর সমন্বয় করে আদর্শ গ্যাসের সমীকরণ পাওয়া যায়। চলো আগে আদর্শ ও বাস্তব গ্যাস সম্পর্কে জেনে ফেলি।

ড্রপ ডাউনগুলোতে ক্লিক করে জেনে নাও বিস্তারিত


আদর্শ গ্যাস ও বাস্তব গ্যাসের মধ্যে পার্থক্য


আদর্শ গ্যাস সমীকরণ বা গ্যাস সূত্রাবলির সমন্বয়


হাইলাইট করা শব্দগুলোর উপর মাউসের কার্সর ধরতে হবে। মোবাইল ব্যবহারকারীরা শব্দগুলোর উপর স্পর্শ করো।

ড্রপ ডাউনগুলোতে ক্লিক করে জেনে নাও বিস্তারিত


সত্য মিথ্যা যাচাই করো





সর্বজনীন গ্যাস ধ্রুবক



মোবাইল স্ক্রিন Swipe করে দেখে নাও বিস্তারিত


অ্যামাগার লেখচিত্র


এ লেখচিত্র থেকে আমরা যা জানতে পারি,

  • আদর্শ আচরণ থেকে বাস্তব গ্যাসের বিচ্যুতি তাপমাত্রার উপর নির্ভর করে, গ্যাসের প্রকৃতির উপর নয়।
  • ন্যূনতম যে তাপমাত্রার উপরে কোন গ্যাসকে যথেষ্ট চাপ প্রয়োগ করেও তরল করা যায় না, তাকে সে গ্যাসের ক্রান্তি তাপমাত্রা (Critical Temperature) বলে।
  • সাধারণভাবে গ্যাসের উপর প্রযুক্ত চাপ যত বেশি হয় এবং গ্যাসের তাপমাত্রা  ক্রান্তি তাপমাত্রার যত নিকটে হয়, আদর্শ আচরণ থেকে তত বেশি বিচ্যুতি ঘটে।

প্রশ্নটি পড়ে উত্তরটি অনুমান করো





আশা করি, এই স্মার্ট বুকটি থেকে তোমরা আদর্শ গ্যাসের সমীকরণ ও গ্যাস ধ্রুবক সম্পর্কে পরিষ্কার ধারণা পেয়েছো। 10 minute school এর পক্ষ থেকে তোমাদের জন্য শুভকামনা রইলো।