Uncategorized

গ্যাসের গতিতত্ত্ব ও আদর্শ গ্যাসের সূত্র

Supported by Matador Stationary

ঘটনা-১: একটি স্টিলের চামচ চুলার ফুটন্ত গরম পানির মধ্যে কিছুক্ষণ ধরে রাখলে তোমরা টের পাবে শুরুতে চামচটির হাতল ঠান্ডা থাকলেও, কিছু সময় পর এর হাতল এত গরম হয়ে যাবে যে সেটা আর ধরে রাখা যাবে না।

ঘটনা-২: এক গ্লাস পানির মধ্যে কয়েক ফোঁটা তরল রং দিয়ে দিলে দেখা যাবে সেই রং ধীরে ধীরে গ্লাসের পানিতে ছড়িয়ে পড়ছে। এক সময় পুরো গ্লাসের পানি রঙিন হয়ে যাবে।

ঘটনা-৩: রান্নাঘরে যখন আমাদের পছন্দের খাবারটি রান্না করা হয় তখন পাশের রুম থেকে এর ঘ্রাণ শুঁকেই আমরা টের পেয়ে যাই। এমনকি অনেক সময় পাশের বাড়ির বিরিয়ানীর ঘ্রাণও আমাদের নাকে চলে আসে।

এ ঘটনা তিনটি থেকে কি বুঝা যাচ্ছে ধারণা করো তো?

ড্রপ ডাউনগুলোতে ক্লিক করে জেনে নাও বিস্তারিত

ঘটনা-৩ এ গ্যাসীয় অণুর গতির কারণে দূর থেকে খাবারের ঘ্রাণ আমাদের নাকে পৌঁছে গেছে। গ্যাসের অণুসমূহের এই গতির উপর ভিত্তি করেই গ্যাসের গতিতত্ত্ব প্রদান করা হয়েছে। আজকে আমরা গ্যাসের গতিতত্ত্ব নিয়ে আলোচনা করব। চলো তাহলে জেনে ফেলি গতিতত্ত্বের ইতিহাস:


মোবাইল স্ক্রিনে swipe করে দেখে নাও বিস্তারিত


(+) চিহ্নিত স্থানে ক্লিক করে জেনে নাও বিস্তারিত


সত্য মিথ্যা যাচাই করো





গ্যাসের গতিতত্ত্বের সমীকরণ থেকে আদর্শ গ্যাসের সূত্রগুলো কীভাবে পাওয়া যায় চলো তা শিখে ফেলি:

ড্রপ ডাউনগুলোতে ক্লিক করে জেনে নাও বিস্তারিত


কোন ছবির সাথে কোন সূত্রটি সম্পর্কিত তা মিলিয়ে ফেলো


প্রশ্নটি পড়ে উত্তরটি অনুমান করো





আশা করি, এই স্মার্ট বুকটি থেকে তোমরা গ্যাসের গতিতত্ত্ব ও আদর্শ গ্যাসের সূত্রগুলোর সাথে গতিতত্ত্বের সম্পর্কটি বুঝতে পেয়েছ। 10 minute school এর পক্ষ থেকে তোমাদের জন্য শুভকামনা রইলো।


Fatal error: Call to undefined function wp_pagenavi() in /home/ab87442/public_html/hsc/wp-content/themes/sociallyviral/content-single.php on line 56