এইচএসসি রসায়ন ১ম পত্র

ল্যাবরেটরিতে ব্যবহৃত সাধারণ যন্ত্রপাতি

Supported by Matador Stationary

স্কুল, কলেজ বলো অথবা ইউনিভার্সিটি, সব জাগায়ই কিন্তু আমরা রসায়নের বিক্রিয়াগুলো হাতে কলমে করার জন্য ল্যাবেটরিতে যেয়ে থাকি। ল্যাবেটরিতে কাজ করার ক্ষেত্রে আমাদেরকে বিশেষ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে কেননা একটি ছোট ভুলের কারণে বড় দূর্ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা থাকে। ল্যাবরেটরিতে নিরাপত্তা রক্ষার্থে আমরা কিছু যন্ত্রপাতি ব্যবহার করে থাকি। আসো এই সাধারণ যন্ত্রপাতি সম্পর্কে একটু বিস্তারিত জেনে আসা যাক।

ড্রপডাউনগুলোকে ক্লিক করে জেনে নাও বিস্তারিত-


ল্যাবরেটরিতে পরিমাপের জন্য ব্যবহৃত যন্ত্রপাতি

1) ব্যালেন্স

2) মাপন সিলিন্ডার

3) আয়তনিক ফ্লাস্ক

4) ব্যুরেট

5) পিপেট

6) কনিক্যাল ফ্লাস্ক


ব্যালেন্স (Balance)

রাসায়নিক বিশ্লেষণে কোনো বস্তুর ওজন সুক্ষ্মভাবে পরিমাপের জন্য ব্যালেন্স ব্যবহার করা হয়। বর্তমানে রসায়ন ল্যাবরেটরিতে  তিন ধরণের ব্যালেন্স ব্যবহৃত হয় –

(১) বুংগে ব্যালেন্স (Bunge Balance)

(২) স্যার্টোরিয়াস ব্যালেন্স (Sartorius Balance)

(৩) ডিজিটাল ব্যালেন্স (Digital Balance)

বুংগে ব্যালেন্স

এই ব্যালেন্সের অক্ষীয় দণ্ডের বাম প্রান্তে শূন্য এবং ডান প্রান্তে দশ দাগাঙ্কিত থাকে এবং প্রতি একক দাগাঙ্কিত  ঘরকে দশটি ক্ষুদ্র দাগে বিভক্ত করা হয়। বুংগে ব্যালেন্সে রাইডারকে শূন্য দাগে রাখতে হবে এবং শেষে রাইডারকে উপযুক্ত স্থানে সরিয়ে নির্দেশককে  শূন্য অবস্থানে আনতে হবে।

ডিজিটাল ব্যালেন্স

বিদ্যুৎচালিত ব্যালেন্স বা ইলেক্ট্রনিক ব্যালেন্স যা দ্বারা বুংগে ব্যালেন্স অপেক্ষা সূক্ষ্ম ও নির্ভুলভাবে ওজন করা যায় এবং ডিজিটাল ডিসপ্লেতে ওজন প্রদর্শন করে। ব্যালেন্সটির পাটাতন কাঁচ দেয়াল দ্বারা আটকানো থাকে।


সঠিক উত্তরটি ক্লিক করো-


ল্যাবরেটরিতে আয়তনমাত্রিক বিশ্লেষণের ব্যবহৃত যন্ত্রপাতি


নিচের ছবি থেকে স্টপ কর্ক চিহ্নিত করো –


আশা করি, এই স্মার্ট বুকটি থেকে তোমরা ল্যাবরেটরিতে ব্যবহৃত সাধারণ যন্ত্রপাতি সম্পর্কে পরিষ্কার ধারণা পেয়েছো। 10 Minute School এর পক্ষ থেকে তোমাদের জন্য শুভকামনা রইলো।


Fatal error: Call to undefined function wp_pagenavi() in /home/ab87442/public_html/hsc/wp-content/themes/sociallyviral/content-single.php on line 56