এসএসসি জীববিজ্ঞান

খাদ্য, পুষ্টি এবং পরিপাক

Supported by Matador Stationary

পুষ্টি

সিমি আর তার আম্মু আজকে তাদের বাসার ছাদে একটা নতুন ফুলের চারা লাগিয়েছে। চারা লাগিয়ে তার আম্মু পানি দিলো চারার গোঁড়ায়। ‌হঠাৎ সিমির মাথায় চিন্তা ঢুকলো, কিভাবে ছোট চারা একসময় বড় হয় এবং ফুল আর ফল ধরে ? এছাড়াও সে তার ছোট ভাই সাইমনকে নিয়েও চিন্তা করলো। সাইমন আগে অনেক ছোট ছিলো। এখন অনেক বড় হয়ে গেছে। এসবই ঘুরছে সিমির মনে। এ প্রশ্নগুলো হয়তো আমাদের মনেও ঘুরে। আজকে তাই আমরা এই ব্যাপারটা নিয়ে আলোচনা করবো। জীবের শারীরিক এবং মানসিক বৃদ্ধির জন্য পুষ্টির প্রয়োজন।

পুষ্টি উদ্ভিদ এবং প্রাণীতে ভিন্ন ভিন্ন হয়। চলো আমরা এ বিষয়টা নিয়ে হালকা পড়ালেখা করি।

উদ্ভিদের পুষ্টি উপাদানের কাজ এবং অভাবজনিত লক্ষণ

উদ্ভিদের পুষ্টি উপাদানের কাজ

উপাদান কাজ অভাবজনিত লক্ষণ
N প্রোটিন, নিউক্লিক এসিড ও ক্লোরোফিল গঠন করে। -নিচের বয়স্ক পাতা থেকে ক্রমান্বয়ে উপরের পাতা হলুদ বর্ণ ধারন করে। নাইট্রোজেনের অভাবে পুরো ফসল সমানভাবে হলুদ হয়।
– পূর্ণ বয়সের আগেই ফুল ধরে।
– ধান গম ও অন্যান্য দানা শস্যে কুশি কম হয়।
P নিউক্লিক এসিড ও ফসফো লিপিড তৈরিতে সাহায্য করে। নিউক্লিয়িক এসিড ও ফসফোলিপিড গঠন করে। energy transfer করে
লক্ষন-গাছ খাটো, কুশি কম, পাতা গাঢ় সবুজ বর্ণ ধারণ করে। পাতা ও কান্ডে লালচে বেগুনী রং।
– ফল পাকতে দেরী হয়। শিকড়ের বৃদ্ধি কমে যায়। Nodded কম হয়।
– ফুল ও ফল কম ধরে। বীজ উৎপাদন হ্রাস পায়।
K enzyme actuate করে। এসমটিক ও আয়নিক নিয়ন্ত্রন। – বয়স্ক পাতার আগা কিনারা ঝলসে বা পুড়ে যাওয়ার মত হয়।
– কান্ড দুর্বল, হেলে পড়ে, রোগ, খরা ও শৈ্ত্য সংবেদনশীল।
– বীজ ও ফল আকারে ছোট হয় ও কুচকে যায়। পাতা, ফুল, ফল ঝরে পড়ে।
– সিম জাতীয় গাছের পাতায় সাদা ছোপ ছোপ দাগ।
S এমাইনো এসিড, বায়োটিন, Vit-B কো-এনজাইম-A গঠন। – অম্লীয় ও কম জৈব পদার্থ মাটিতে অভাব দেখা দেয়
– কচি পাতা হলদে-সাদা হয়। ধীরে ধীরে পুরাতন পাতায়।
– ফসল পাকতে দেরী হয়।
Ca কোষের পর্দা গঠন ও কোষ বিভাজন এ ভূমিকা রাখে। – নতুন পাতা সাদা হয়ে যায়।
– বাড়ন্ত অংশ (ডগা, বোটা) মরে যায়, কুকড়ে যায়।
Mg ক্লোরোফিল গঠন। এনজাইমের বিক্রিয়ার ফ্যাক্টর হিসাবে কাজ করে। – বয়স্ক পাতা হালকা সবুজ বা হলদে রং হয় তবে শিরা গুলো সবুজ থাকে।
– খরার প্রভাবের এর মত পাতা মোড়ানো
– কম PH ও হালকা বুনটের মাটিতে Mg এর অভাব হয়।
Zn Auxin তৈরী করে dehydrogenage ensyme activate করে Rhibosom এর কাজ নিয়ন্ত্রন। – কচি পাতার মধ্যশিরা গোড়ার দিকে সাদা হয়ে যায়।
– পুরাতন পাতায় মরিচার মত ছোট ছোট দাগ হয়। পরে পাতা বাদামী বর্ণ ধারণ করে।
– ফসলের অসমান বৃদ্ধি হয়, ফসল দেরীতে পরিপক্ক হয়।
– অধিক অম্ল, চুন যুক্ত মাটি, সারা বছর ভেজা মাটিতে অভাব হয়।
B কার্বহাইড্রেট মেটাবলিজম, সোটিন সিনথেসিম ও বীজ গঠন। – বাড়ন্ত ডগা মারা যায়। পাতার ডগা ফেকাশে সবুজ, ব্রোঞ্চ আভাযুক্ত।
– ফলের আকার বিকৃত হয়, দানা হয় না (চিনাবাদাম)

এবার আমরা প্রাণীর পুষ্টি নিয়ে আলোচনা করি চলো।

প্রাণীর পুষ্টি

প্রাণী বিভিন্ন উপাদান থেকে পুষ্টি পেয়ে থাকে৷ আর এই উপাদান গুলো ৬টি৷