পাঠকপ্রিয় সেরা পাঁচ (গণিত, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক বই)

পুরোটা পড়ার সময় নেই? ব্লগটি একবারে শুনে নাও!

 

বই পড়ার অসীম আগ্রহ আছে, কিন্তু সময়মত পছন্দের বিষয়ের বই বাছাই করতে হিমশিম খেয়ে যাও- এমন যারা আছো, তাদের জন্যই আমরা ধারাবাহিকভাবে বিভিন্ন বিষয়ভিত্তিক সর্বাধিক পাঠকপ্রিয়তা পাওয়া বইগুলো সম্পর্কে জানাতে চেষ্টা করছি। আজ তোমাদের জন্য থাকছে সেরা পাঁচ জনপ্রিয় গণিত, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক বইয়ের খোঁজ:

গণিতের রঙ্গে হাসিখুশি গণিত- চমক হাসান:

নামটি শুনে নিশ্চয়ই বুঝতে পারছো, এটি গণিতের মজার কিছু ব্যাপার নিয়ে লেখা একটি বই। বইটি মোটামুটি যে কোনো বয়সের মানুষই পড়তে পারবে। গণিত নিয়ে যাদের আগ্রহ নেই কিংবা যাদের অনেক আগ্রহ অথবা যারা গণিতকে ভয় পায়- সব ধরণের মানুষের উপযোগী করে লেখা হয়েছে এই বইটি।

কেমন অদ্ভুত ছিল গণিতবিদদের জীবন? আসলে কে আবিষ্কার করেছিল পিথাগোরাসের উপপাদ্য? কীভাবে মাথায় এল আইডিয়াটা? তিন মেয়ের সমস্যাটা কী ছিল? মাথায় চুলের সংখ্যা কত? অনন্ত জলিল গণিত নিয়ে সিনেমা বানালে কী সংলাপ বলতেন? এমন সব মজার প্রশ্নের মজার উত্তর আছে এই বইটিতে।

গণিতের সমস্যাগুলো সমাধান করতে গিয়ে অনেক সূত্র মুখস্ত করি, অনেক কিছু শিখে নিই মুখ বুজে। কিন্তু বুঝি কি, সেগুলো কোত্থেকে এলো? এই বইটিতে চমক হাসান খুব সহজভাবে হিউমার দিয়ে খুলে দিয়েছেন গণিতের একেবারে ভেতরের কিছু প্যাঁচ। গণিতে যদি তোমার ভীতি থাকে, তবে যেই ভীতি দূর করতে দারুণ কার্যকর টনিক হতে পারে এই বইটি!

বিশেষ ছাড়ে বইটি কিনতে চাইলে চলে যাও এই লিংকে!

গণিতের মজা মজার গণিত- মুহম্মদ জাফর ইকবাল:

শিশু কিশোরদের মন থেকে বিজ্ঞান ও গণিতভীতি দূর করতে দীর্ঘদিন থেকেই কাজ করছেন মুহম্মদ জাফর ইকবাল, লিখেছেন অনেক অনেক বই। তার মধ্যেই বেশ উল্লেখযোগ্য বই এই “গণিতের মজা মজার গণিত”।

বইয়ের প্রথম পর্বে রয়েছে- এক কীভাবে দুইয়ের সমান হয় তার মজার ব্যাখ্যা, ফিবোনাচি ধারা কী, ফিবোনাচি পদ, টাওয়ার অফ হ্যানয়,  মারজেন প্রাইম ও পারফেক্ট সংখ্যা, সসীম ক্ষেত্রের অসীম পরিসীমা, বাইনোমিয়ালের সূত্র এবং প্যাস্কেলের ত্রিভুজ সংক্রান্ত মজার মজার সব সমস্যা ও তার সমাধান। একশটি মজার গাণিতিক সমস্যা দিয়ে সাজানো হয়েছে বইটির দ্বিতীয় পর্ব। শুধু সমস্যাই নয়, এর সমাধানও দেয়া আছে বইটির একেবারে শেষে। তৃতীয় পর্বে রয়েছে একশ চমকপ্রদ সংখ্যা, যা দিয়ে খুব আনন্দের সাথে বুদ্ধির পরীক্ষা করা যাবে।

শেষভাগে গণিত সম্পর্কিত কিছু গুরুত্বপূর্ণ  বই ওয়েবসাইটের তালিকাও রয়েছে। গণিতে তোমার আগ্রহ থাকলে, অথবা অযথা ভীতি থাকলে এই বইটি হতে পারে তোমার প্রথম পছন্দ!

বিশেষ ছাড়ে বইটি কিনতে চাইলে চলে যাও এই লিংকে!

গণিত এবং আরো গণিত- মুহম্মদ জাফর ইকবাল, জাকারিয়া স্বপন:

গণিতকে জনপ্রিয় করা জন্য যে বেশ কিছু উদ্যোগ নেয়া হয়েছে, তার একটি হচ্ছে গণিতের কিছু বই লেখা। সেই উদ্যোগের একটি অংশ হচ্ছে এই বইটি। শুধু মাপজোখ আর কেনাবেচার হিসাবই নয়, মহাজাগতিক ভাষাও হল গণিত। তাই – এ যুগের শিক্ষাব্যবস্থায় কে কত বেশি এগিয়ে যাবে সেটাও অনেকটা যে গণিতের উপর নির্ভরশীল, তা চোখ বন্ধ করেই বলা যায়।

স্কুলের গন্ডি পার হয়ে যাবার আগে গণিতের যে বিষয়গুলো একজন ছাত্র বা ছাত্রীর জানা দরকার, সেগুলোকে এই বইটিতে একত্র করেছেন মুহম্মদ জাফর ইকবাল এবং জাকারিয়া স্বপন। বইটির একটি বিশেষ সুবিধা হল, গণিতের সমস্যা লেখার জন্য ইংরেজি সংখ্যা ব্যবহৃত হয়েছে।

লেখকদের ধারণা- একজন ক্লাস সেভেনের ছাত্রও বইটি বুঝতে সক্ষম হবে, ক্লাস এইটে বেশ ভালভাবে এবং নাইন টেনে পুরোপুরি ব্যবহার করতে পারবে। প্র্রতিটি টপিকের শুরুতে ঐ বিষয়ে গবেষণা করে অবদান রাখা বিজ্ঞানীদের পরিচয় সংযোজন বইটিকে করেছে আরো সমৃদ্ধ। স্কুল পর্যায়ের গণিতে নিজের ভিত পাকাপোক্ত করতে তাই এই বইটি সংগ্রহে রাখতেই পারো।

বিশেষ ছাড়ে বইটি কিনতে চাইলে চলে যাও এই লিংকে!

অঙ্ক ভাইয়া- চমক হাসান

গণিত কেন সুন্দর? শুধু কি কাজে লাগেই বলে গণিত সুন্দর? 11=Onety One, 12=onety two নয় কেন? শুন্য আবিষ্কারের আগে মানুষ ১০, ২০ কীভাবে লিখতো? শুন্য দিয়ে ভাগ করার সমস্যা? বাংলাদেশের আয়তন নাকি ক্ষেত্রফল ১,৪৭,৫৭০ বর্গকিমি? ফিবোনাচি সিরিজ কোত্থেকে এলো? ফাংশন দিয়ে কী হয়? x অক্ষকেই কেন স্বাধীন ধরা হয়? এরকম আরো বহু প্রশ্নের উত্তর গল্পাকারে আছে বইটিতে।

স্কুলের গণিত শিক্ষক নজিবুল্লাহ মাস্টার এর কাছে গাণিতিকভাবে নির্যাতিত হয়েছে স্কুলের ছেলেমেয়েরা। পরে তারা গণিতপ্রেমী বুয়েট পড়ুয়া তূর্য ভাইয়া অর্থাৎ তাদের সবার প্রিয় অঙ্ক ভাইয়ার সাক্ষাৎ পায়।তাদের মনের সকল প্রশ্ন তার কাছে নির্ভয়ে জানায়, আস্তে আস্তে গণিতের রহস্যগুলো জেনে তারাও গণিতকে ভালোবাসতে শেখে।

এই গল্পটা তো তোমার, আমার, সবার। তাই না? গণিতের গল্পগুলো জানলে দেখবে, ভয়গুলো সব কোথায় উড়ে পালাচ্ছে! গণিতকে ভালোবাসতে চাইলে তাই এক্ষুণি হাতে নাও এই দারুণ বইটি!

বিশেষ ছাড়ে বইটি কিনতে চাইলে চলে যাও এই লিংকে!

বিজ্ঞানের একশ মজার খেলা- মুহম্মদ জাফর ইকবাল

আমাদের দেশের স্কুলের শিক্ষার্থীদের বেশিরভাগেরই অভিযোগ, তারা বিজ্ঞানের এক্সপেরিমেন্টগুলোর জন্য যথাযথ উপকরণ হাতে পায় না। ফলে তারা বিজ্ঞানের প্রকৃত আনন্দ উপলব্ধি করতে পারে না। এই সমস্যা সমাধানে মুহম্মদ জাফর ইকবাল এই বইটিতে এক্সপেরিমেন্টগুলো অতি সহজভাবে তুলে ধরেছেন।

তুমি যদি বাংলা রিডিং পড়তে পারো, তাহলেই তুমি এই বইটি পড়ে বুঝতে পারবে। শুধু তাই নয়, এই বইয়ের এক্সপেরিমেন্টগুলো করতে যে উপকরণগুলো লাগে, তা আমাদের হাতের কাছেই পাওয়া যায়। ফলে, যে কেউ বুঝতে পারবে, যে বিজ্ঞানের বই পড়ার চেয়ে হাতে-কলমে বিজ্ঞানের পরীক্ষাগুলো করতে পারা কতটা আনন্দের!

বইটিতে বিজ্ঞানের মজার পরীক্ষাগুলোর নিচে তা কেন এমন হয়- সে প্রশ্নের উত্তরও বলে দেওয়া আছে বলে, তোমরা সবাই এসব এক্সপেরিমেন্টের পাশাপাশি বিজ্ঞানকে মনেপ্রাণে অনুভব করতে পারবে। বইটি পড়ার পর তুমি যে এক্সপেরিমেন্টগুলো শিখতে পারবে, সেগুলো যে শুধু বিজ্ঞানের মজা বোঝার জন্যই শিখবে, তা কিন্তু নয়! এগুলোর মধ্যে কিছু কিছু তোমার বাস্তব জীবনেও কাজে লাগবে। তাহলে আর দেরি না করে বইটি থেকে নিতে পারো বিজ্ঞানের প্রকৃত আনন্দের মৃদু স্পর্শ।

বিশেষ ছাড়ে বইটি কিনতে চাইলে চলে যাও এই লিংকে!

বিজ্ঞান-গণিত বিষয়ে যদি তুমি আগ্রহী হও, তবে এই বইগুলো তোমার জন্যে সোনার খনি। আর যদি তেমন আগ্রহ না পেয়ে থাকো, তাহলেও একটু পৃষ্ঠা উলটে দেখতে পারো। আমি হলফ করে বলতে পারি, তুমি আনন্দ পাবেই! তাহলে আর দেরি কেন? শুরু করে দাও এখনই! বইগুলো পড়ার পরে তোমার অনুভূতি আমাদেরকে জানাতে একটুও দেরি কোরো না!

৫টি বই একইসাথে এক লিস্ট থেকে কিনতে চাইলে ঘুরে এসো এই লিংকটি থেকে!

এই লেখাটির অডিওবুকটি পড়েছে তাওহিদা আলী জ্যোতি।

What are you thinking?