৮টি ইউটিউব চ্যানেল যা তোমাকে স্মার্ট করে তুলবে

ইউটিউবে বসে তুমি সারাদিন কী কী ধরণের ভিডিও দেখো একবার চিন্তা করো তো। গানের ভিডিও, ফানি ভিডিও, মুভি ট্রেইলার কিংবা কোনো সমস্যায় পড়লে সেটার সমাধান খুঁজে বের করার জন্য ইউটিউবে ভিডিও দেখো। কেউ কেউ হয়তো টেকনোলজি নিয়ে ভিডিও দেখতে পছন্দ করে। তাই তার ইউটিউবে সব টেকনোলজি সম্পর্কিত চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করা। তবে এই কথা ফেলে দেয়া যাবে না যে, বেশিরভাগ মানুষ ইউটিউব চালায় সময় পার করার জন্য। কোনো কাজ পাচ্ছে না, বসে বসে ইউটিউবে ভিডিও দেখলো। ভিডিও দেখে সময় কাটানো মোটেও খারাপ না। আসলে মানুষ এইসব ভিডিও দেখেই সময় কাটানোর জন্য। তবে অনেকেই আছেন যারা কোনো একটি নির্দিষ্ট চ্যানেলের ফ্যান। কবে সেই চ্যানেল থেকে ভিডিও বের হবে সেই অপেক্ষায় তারা বসে থাকে।

আচ্ছা, কেমন হতো যদি এই ইউটিউবে ভিডিও দেখে কাটানো সময়টাকে আরেকটু স্মার্টভাবে কাটানো যেতো? ভিডিও দেখলাম, সময় কাটালাম, আবার নতুন কিছুও শিখলাম। এমন অনেক ইউটিউব চ্যানেল আছে যাদের ভিডিও বানানোর উদ্দেশ্যই হলো তোমাকে, আমাকে নতুন কিছু শিখানো এবং নতুন কোনো ধারণার সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়া। ধরো তুমি রাস্তায় জ্যামে বসে আছো কিংবা বাসায় বসে অলস সময় কাটাচ্ছো। এমন সময় যদি অযথা বসে না থেকে নতুন কিছু শিখতে পারো, তাহলে খারাপ কী! তাহলো চলো এমন ৮টি ইউটিউব চ্যানেলের সাথে পরিচয় করিয়ে দেই যেখান থেকে তুমি প্রতিদিন নতুন কিছু না কিছু শিখতে পারবে।

TED 

ইউটিউবে নিয়মিত শিক্ষামূলক ভিডিও দেখে কিংবা নতুন সব আইডিয়া নিয়ে কাজ করে কিন্তু টেডের নাম শুনেনি এমন মানুষ সম্ভবত পাওয়া যাবে না। টেড কী আসলে? টেড হলো একটি আইডিয়া শেয়ারিং প্লাটফর্ম। টেড কনফারেন্সে বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের বলে যাওয়া কথা সকলের সাথে শেয়ার করা হয় এই ইউটিউব চ্যানেলে। কী বিষয় নিয়ে তারা কথা বলেন? শিক্ষা, চিকিৎসা, শিল্প, বাণিজ্য, চাকরি, ভ্রমণ সবকিছু নিয়েই তারা কথা বলেন। তাদের কথা বলার উদ্দেশ্যই হলো সবার কাছে যাতে তাদের আইডিয়া এবং কথা গুলো পৌঁছে যায়। কারণ Ideas worth spreading।

টেডের ওয়েবসাইটের একাংশ; সোর্সhttps://www.ted.com

সকলের সুবিধার জন্য তারা আলাদা আলাদা ইউটিউব চ্যানেল ব্যবহার করে। যখন শিক্ষা নিয়ে কথা বলে তখন ব্যবহার করে Ted-ed। এখানে তারা শিক্ষামূলক নানা কথার পাশাপাশি শিক্ষা নিয়ে নতুন নতুন সব ধারণা সবার সামনে তুলে ধরে। তারা যখন কোনো কনফারেন্স করে কোনো একটি বিষয় নিয়ে, তখন ব্যবহার করে Ted-talk। Ted-talk এর একটি ব্যাপার হলো, বক্তাকে এখানে ১৮ মিনিটের মাঝে তার বক্তব্য শেষ করতে হয়। বক্তা চাইলে এমন যে কোনো বিষয় নিয়ে কথা বলতে পারেন যা শ্রোতাদের শুনে কাজে আসবে। হতে পারে এটি শিক্ষামূলক কোনো বক্তব্য কিংবা ব্যবসা নিয়ে কোনো আলোচনা।

SciShow 

“This is SciShow and we hate not knowing” – এই কথা দ্বারা কী বুঝাতে চাচ্ছে তা নিশ্চই বুঝতে পারছো। জানার তো কোনো শেষ নেই। এই পৃথিবীতে প্রতিনিয়তই নতুন সব ঘটনা ঘটে যাচ্ছে। আবার অনেক আগে ঘটে গিয়েছে কিন্তু এখনও কারণ জানি না এমন ঘটনাও আছে। সমুদ্র জগতের নানা রহস্য থেকে শুরু করে  মহাশূন্য জুড়ে ঘটে যাওয়া নানা রোমাঞ্চকর ঘটনা। কম্পিউটারের ভাইরাসের উৎপত্তি থেকে শুরু করে আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার বৃদ্ধি। এসব কিছু নিয়েই কথা বলা হয় SciShow তে।

SciShow এর উপস্থাপকেরা; সোর্স – WNYC Studios

মূলত বিজ্ঞানের জগৎ নিয়েই কথা বলে এই চ্যানেলটিতে। বিজ্ঞানকে নিয়ে নতুনভাবে ভাবতে বাধ্য করবে এই চ্যানেলটি।

It’s Okay To Be Smart 

একবার চিন্তা করে বলো তো, কোন কোন বিষয়ে তোমার জানতে ইচ্ছা করে। মহাশূন্য? ভারচুয়াল রিয়েলিটি? তোমার পোষা কুকুরের অভ্যাস? মৌমাছির মধু? পৃথিবীর আকৃতি গোল নাকি চ্যাপ্টা? চ্যানেলের নাম দেখেই বুঝতে পারছো যে, এসব জানাটা খারাপ কিছু না। তোমার আগ্রহের জিনিস নিয়ে তুমি জানতেই পারো। আর এজন্য তোমাকে সাহায্য করবে It’s Okay To Be Smart চ্যানেলটি। পৃথিবীর সকল রহস্যের ব্যাপারে বিস্তারিত সব তথ্য তোমার সামনে তুলে ধরবে এই চ্যানেলটি।

It’s Okay To Be Smart এর পোস্টার; সোর্স – spotzen

Vsauce 

বিজ্ঞান নিয়ে কতোভাবে চিন্তা করা যায়? পৃথিবী, মহাশূন্য, গণিত, পদার্থ বিজ্ঞান, মানুষের মন আরও কতো কী! এর সবকিছু নিয়ে যতো প্রশ্ন, তার উত্তর তুমি পেয়ে যাবে এই চ্যানেলটিতে। একবার চিন্তা করো তো, কী হতো যদি পৃথিবীর সবাই একসাথে লাফ দিতো? কী হতো যদি হঠাৎ করে আমাদের সৌরজগতের সূর্যটি গায়েব হয়ে যেতো? আমাদের পৃথিবী কি আসলেই গোল নাকি চ্যাপ্টা আকৃতির? এরকম নানা প্রশ্নের উত্তর পেয়ে যাবে তুমি এই চ্যানেলটিতে। এই চ্যানেলটিতে মূলত বিজ্ঞানের বিভিন্ন বড় বড় তত্ত্ব এবং ধারণা নিয়ে আলোচনা করা হয়। এখানে যেভাবে আলোচনা করা হয়, তা তোমাকে বিজ্ঞান নিয়ে নতুনভাবে ভাবানোর জন্য যথেষ্ট।

Vsauce এর উপস্থাপক মাইকেল; সোর্স – YouTube

Big Think 

এবার এমন কিছু নিয়ে চিন্তা করি যেখানে বিজ্ঞানের সাথে জড়িয়ে আছে দর্শন এবং রাষ্ট্রনীতি। আচ্ছা, দার্শনিকদের চিন্তা ভাবনা কেমন হয়? দেশের অর্থনীতি যখন ভেঙ্গে পড়তে শুরু করে, তখন কীভাবে সামনের সিদ্ধান্ত নেয়া উচিত? আত্মমর্যাদা অর্জনের জন্য কী কী স্তর পার করে আসতে হয়? টাইম ট্রাভেল কি আসলেই সম্ভব? অতি মেধাবী মানুষজন কি জন্ম থেকেই মেধাবী? এরকম নানা চিন্তা-ভাবনা নিয়ে হাজির হয় এই চ্যানেলটি। এসকল চিন্তা-ভাবনার সাথে পরিচয় হলে তুমি নতুন করে বিশ্বটাকে নিয়ে চিন্তা করা শুরু করবে। ভাবতে শুরু করবে নানা জটিল প্রশ্নের সমাধান। শিখবে আরও অনেক নতুন কিছু।

Common Sense Education 

কমন সেন্স শিখার বিষয় না। এটি হলো চর্চার বিষয়। কিন্তু কিছু ক্ষেত্রে মনে হয় মানুষজনকে আসলেই একটি কমন সেন্স শেখানো দরকার। মানুষের ব্যক্তিগত বিষয়ের উপর নজরদারি করা, যেখানে সেখানে উত্যক্ত করা, দায়িত্ববোধের ব্যাপারে খামখেয়ালিপনা দেখানো, অনলাইন জগৎ এবং বাস্তব জগতের মাঝে গুলিয়ে ফেলা এরকম আরও অনেক ক্ষেত্রে মনে হয় কিছু মানুষের আলাদা ক্লাস করানো দরকার। কিন্তু সবাইকে তো আর ক্লাসে ডেকে এনে বুঝানো সম্ভব না। তাই তাদের কাছে সঠিক কথাটি পৌঁছে দেবার জন্য আছে এই চ্যানেলটি।

এই চ্যানেলে যে কেবল এসব বিষয় নিয়েই ভিডিও বানানো হয় তা কিন্তু না। বর্তমান যুগে একজন আদর্শ নাগরিকের কী কী গুণাবলি থাকা দরকার, আদর্শ পিতা-মাতা হওয়ার জন্য কী করণীয়, শিশুর মন কীভাবে কাজ করে তা সবকিছু নিয়েই এখানে আলাদা আলাদা ভিডিও আছে। তাছাড়া বর্তমানের তরুণদের চোখে পৃথিবীটা কেমন সহনীয় কিংবা দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে সেসব বিষয় নিয়েও এই চ্যানেলটি কথা বলে।

The Infographics Show 

তথ্য জানতে কেমন লাগে? না, মজার কোনো তথ্যের কথা বলছি না। এমন কোনো তথ্য না যেটা গল্পের মতো পড়লেই জানা যাবে। এমন সব তথ্যের কথা বলছি যেগুলো না বুঝেই পড়া লাগে। যাদের যাদের না বুঝেই কোনো কিছু মুখস্ত করা লাগে তারা জানে এই কাজটা কী পরিমাণে বিরক্তিকর এবং কষ্টকর। মাঝে মধ্যে পড়ার সময় মনে হয় না যে, এই তথ্যগুলো যদি কেউ একটি ভিন্নভাবে উপস্থাপন করে দিতো? একটু মজার ছলে তথ্যগুলো সামনে থাকলে মনে রাখাটা কতোই না সহজ হয়ে যেতো।

The Infographics Show এর উপস্থাপনার ধরণ; সোর্স – Stickmanjones

The Infographics Show এই তথ্য মনে রাখার কাজটিই তোমার জন্য সহজ করে তুলেছে। তারা বিভিন্ন বিষয়ের উপর অ্যানিমেশন ভিডিও বানিয়ে সেগুলো তাদের চ্যানেলে উপস্থাপন করে। রাজনৈতিক, বৈজ্ঞানিক, খেলাধুলা, চিকিৎসা সকল বিষয়ের উপরেই তারা ভিডিও বানিয়ে থাকে। ভিডিওগুলো সত্যিই প্রচুর তথ্যবহুল হয় এবং কার্টুন অ্যানিমেশনের কারণে দেখতেও বেশ মজার লাগে। শুধু তথ্য দিয়েই তারা ভিডিও বানায় এমন কিন্তু না। বিখ্যাত সব মজার ঘটনার উপরও তারা অ্যানিমেশন ভিডিও বানিয়ে থাকে। এছারা মজার সব ধাঁধাঁ তারা কার্টুন অ্যানিমেশনের মাধ্যমে সবার সামনে তুলে ধরে।

Edutopia 

একটি বিষয় চিন্তা করো। তোমাকে যেভাবে ছোটবেলা থেকে বড় করা হয়েছে, যেভাবে তোমাকে পড়ালেখা শেখানো হয়েছে, যেভাবে তোমাকে আশেপাশের জগতের সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়া হয়েছে তা কি যথেষ্ট ছিলো? অথবা ব্যাপারগুলো কি একটু ভিন্নভাবে কিংবা আরও সুন্দরভাবে হতে পারতো? অবশ্যই পারতো!

শিশুদের ভদ্রতা শিখানো, সহমর্মিতা শিখানো, দলবদ্ধভাবে কাজ করা শিখানো এগুলোর জন্য অনেক সুন্দর এবং আধুনিক নিয়ম রয়েছে। এই চ্যানেলটিতে এসব নিয়ম বাচ্চাদের কীভাবে শিখানো যায় সেসব বিষয় নিয়ে অনেকগুলো ভিডিও রয়েছে। এছাড়াও রয়েছে বাচ্চাদের বেড়ে উঠার ক্ষেত্রে কোন কোন ব্যাপারে অধিক গুরুত্ব দেয়া উচিত সেসব বিষয় নিয়ে।

এখানে যেসকল চ্যানেল নিয়ে কথা বলা হয়েছে সেগুলো সবক’টি তাদের টার্গেট দর্শকদের কথা মাথায় রেখে ভিডিও বানায়। তাদের চ্যানেলের মূলবস্তু ঠিক রেখে দর্শকদের সামনে প্রতিবারই নতুন নতুন সব তথ্য নিয়ে আসে। চাইলে তুমিও এদের মতো ভিডিও বানিয়ে তোমার কথা সবার সাথে শেয়ার করে ফেলতে পারো। এর জন্য তোমাকে যে সবসময় ইউটিউব চ্যানেলের উপর নির্ভর করতে হবে এমনটা না। তুমি চাইলে ফেইসবুকেই তোমার কথা ভিডিও করে সবার সাথে শেয়ার করতে পারো।

রেফারেন্স –

১. https://mashable.com/2013/04/04/youtube-education/

২. https://www.learningliftoff.com/the-best-educational-youtube-channels-for-kids/

৩. https://medium.com/the-graph/60-youtube-channels-that-will-make-you-smarter-44d8315c2548

লেখাটি ভালো লেগে থাকলে বন্ধুদের সঙ্গে শেয়ার করতে ভুলবেন না!
Author

Nahiyan Siyam

আমি নাহিয়ান সিয়াম। রমজান মাসে জন্ম বলে মা পছন্দ করে আমার এই নাম রাখেন। লিখতে ভালো লাগে তাই লেখালেখির কাজ পেলেই তা হাতে নেয়ার চেষ্টা করি।
Nahiyan Siyam
এই লেখকের অন্যান্য লেখাগুলো পড়তে এখানে ক্লিক করুন
What are you thinking?