লেনদেন

হাইলাইট করা শব্দগুলোর উপর মাউসের কার্সর ধরতে হবে। মোবাইল ব্যবহারকারীরা শব্দগুলোর উপর স্পর্শ করো।

মানুষের জীবন চক্র হল কতগুলো ঘটনার সমষ্টি। তুমি সকালে ঘুম থেকে উঠে নিজেকে কলেজ যাত্রার উদ্দেশ্য প্রস্তুত করলে। কলেজে গিয়ে ক্লাস করলে। এরপর তুমি কলেজ থেকে ফেরার পথে মুদির দোকান হতে মায়ের দেওয়া লিস্ট অনুযায়ী কেনাকাটা করলে এবং বাড়ি ফিরে এলে। উপরে উল্লেখিত সবগুলোই ঘটনা। অর্থাৎ কোন কিছুর সংঘটনকে ঘটনা বলে।

ঘটনা দুই ধরনের হয়ে থাকে।
১। আর্থিক ঘটনা
২। অনার্থিক ঘটনা

লেনদেন বলতে আর্থিক ঘটনাকে বুঝাই। অর্থাৎ যে ঘটনা কোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্টানের আর্থিক অবস্থার পরিবর্তন আনয়ন করে এবং উক্ত পরিবর্তন টাকার অংকে পরিমাপযোগ্য তাকে লেনদেনরুপে অভিহিত করা যায়।
উদাহারণ স্বরূপ যদি বলা হয় মিঃ পার্থ কে ৫০,০০০ টাকা বেতনে ম্যানেজার হিসেবে নিয়োগ করা হলো। এটি একটি পরিমাণগত ঘটনা বটে। তবে একে লেনদেন বলা যায়না। কারণ এতে এখন পর্যন্ত অর্থের আদান প্রদান হয়নি, শুধুমাত্র নিয়োগ হয়েছে। তবে যদি বলা হয় মিঃ পার্থ কে ৫০,০০০ টাকা বেতন প্রদান করা হলো। এটি একটি লেনদেন।কারণ এটি টাকার অঙ্কে পরিমাপযোগ্য এবং অর্থের আদান প্রদান হয়েছে অর্থাৎ আর্থিক অবস্থার পরিবর্তন হয়েছে। এ কারণেই টাকার অংকে পরিমাপযোগ্য আর্থিক পরিবর্তন আনয়নকারী ঘটনাসমূহ কে লেনদেন বলা হয়।

“সকল লেনদেনই ঘটনা, কিন্তু সকল ঘটনা লেনদেন নয় ”


লেনদেনের বৈশিষ্ট্য


লেনদেন তথা অর্থ ও পণ্যের চলাচল প্রণালীটি মানব দেহের রক্ত চলাচল প্রণালীর সঙ্গে তুল্য। রক্ত চলাচল ব্যবস্থা যেমন প্রত্যেক মানুষের শরীরে হাত পা মাথা পর্যন্ত বিস্তৃত থাকে, তেমনি লেনদেনগুলো কারবারী সংস্থার কৃত্তিম দেহের সর্বত্র ছোট বড় কম বেশি মুল্যে ও বিভিন্ন ভাবে সংগঠিত হয়। তবে সকল ঘটনা লেনদেন হতে পারেনা। চলো জেনে নিই লেনদেন হতে হলে যেসব বৈশিষ্টসমূহ থাকা প্রয়োজন।


প্রিয় বন্ধুরা, তোমরা তো লেনদেন সম্পর্কে মৌলিক ধারণা লাভ করলে। তাহলে এবার তোমাদের মেধা যাচাই করে নাও।


সঠিক উত্তরে ক্লিক করো


লেনদেনের প্রকারভেদ


প্রতিষ্ঠানের দৃষ্টিকোণ হতে লেনদেন দুই প্রকার।

ড্রপ ডাউনগুলোতে ক্লিক করে জেনে নাও বিস্তারিত

মূল্য পরিশোধের দৃষ্টিকোণ হতে লেনদেন ৩ প্রকার


দৃশ্যমানতার ভিত্তিতে লেনদেন ২ প্রকার

উপযোগিতার ভিত্তিতে লেনদেন ২ প্রকার


লেনদেনে ব্যবহৃত বিভিন্ন দলিলপত্রাদি


তোমরা নিশ্চয় জানো একটি ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানে প্রতিদিন অসংখ্য লেনদেন সং গঠিত হয়। এসব লেনদেনের প্রমান স্বরূপ বিভিন্ন দলিলপত্র প্রস্তুত ও সংরক্ষণ করা হয়। প্রামাণ্য দলিলগুলো হল লেনদেন লিপিবদ্ধ করার ভিত্তি স্বরূপ। নিচে দলিল গুলোর পরিচয় দেওয়া হল।

ড্রপ ডাউনগুলোতে ক্লিক করে জেনে নাও বিস্তারিত


(+) চিহ্নিত স্থানে ক্লিক করে জেনে নাও বিস্তারিত


আশা করি, এই স্মার্ট বুকটি থেকে তোমরা লেনদেন সম্পর্কে পরিষ্কার ধারণা পেয়েছো। 10 Minute School এর পক্ষ থেকে তোমাদের জন্য শুভকামনা রইলো।