রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর: প্রাণ

10 minute school bangla smartbook

প্রাণ

লেখক: রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

মরিতে চাহি না আমি সুন্দর ভুবনে,
মানবের মাঝে আমি বাঁচিবারে চাই।
এই সূর্যকরে এই পুষ্পিত কাননে
জীবন্ত হৃদয়-মাঝে যদি স্থান পাই!
ধরায় প্রাণের খেলা চিরতরঙ্গিত,
বিরহ মিলন কত হাসি-অশ্রুময়-
মানবের সুখে দুঃখে গাঁথিয়া সংগীত
যদি গো রচিতে পারি অমর-আলয়!
তা যদি না পারি, তবে বাঁচি যত কাল
তোমাদেরি মাঝখানে লভি যেন ঠাঁই,
তোমরা তুলিবে বলে সকাল বিকাল
নব নব সংগীতের কুসুম ফুটাই।
হাসি মুখে নিয়ো ফুল, তার পরে হায়
ফেলে দিয়ো ফুল, যদি সে ফুল শুকায়॥


মূলভাব:

কবি এই সুন্দর পৃথিবী থেকে চির বিদায় নিতে চান না। তিনি এই পৃথিবীতে বেঁচে থাকতে চান। প্রকৃতির নিয়মে একসময় মানুষের স্বাভাবিক মৃত্যু ঘটে। সেই মৃত্যুকে মানুষ চাইলে এড়াতে পারেন না। কবি তাই মানুষের মাঝে কর্মের মাধ্যমে বেঁচে থাকতে চান। তিনি এমন কিছু সৃষ্টি করে যেতে চান, যাতে জগতের মানুষ তাঁর কথা চিরকাল মনে রাখে।

ছোট্ট কুইজটি দিয়ে ফেলো এখনই!

কন্টেন্ট ক্রেডিট:
অহিদুজ্জামান স্যার
মতিঝিল মডেল হাই স্কুল


তোমার বন্ধুদের সাথেও স্মার্টবুকটি শেয়ার করে নাও