10 Minute School
Log in

পলিমার (Polymar) প্রকারভেদ, ধর্ম ও ব্যবহার

পলিমার ( Polymar )

যে বিক্রিয়ায় কোনো পদার্থের অনেকগুলো ক্ষুদ্র অনু পরস্পর যুক্ত হয়ে বৃহৎ অনু গঠন করে সেই বিক্রিয়াকে পলিমারকরণ বিক্রিয়া বলে। এর একটি অনুকে মনোমার বলা হয়। একাধিক মনোমার মিলে পলিমার গঠিত হয়। আমাদের খাদ্যের প্রধান উপাদান প্রোটিন হলো অ্যামাইনো এসিডের একটি পলিমার ( Polymar ) ।

বিঃ দ্রঃ মনো এর অর্থ “একটি” পলি এর অর্থ “বহু”।

  • পলিমারকরণ বিক্রিয়া দুই প্রকার। যথা-

(i) সংযোজন বা যুত পলিমার

(ii) ঘনীভবন পলিমার

সংযোজন বা যুত পলিমার (Addition or additive polymer)

যে পলিমারকরণ বিক্রিয়ায় মনোমার অনুগুলো সরাসরি একে অপরের সাথে যুক্ত হয়ে দীর্ঘ শিকল বিশিষ্ট্ পলিমার গঠন করে তাকে সংযোজন পলিমারকরণ বিক্রিয়া বলে।এ

সংযোজন পলিমারকরণ বিক্রিয়া

সামান্য পরিমান অক্সিজেনের উপস্থিতিতে 1000  বায়ুমন্ডল চাপে (atm) ও 2000C তাপমাত্রায় ইথিনকে উত্তপ্ত করলে পলিথিন উৎপন্ন হয়। এই বিক্রিয়ায় ইথিনকে মনোমার বলা হয়।

Addition or additive polymer

পলিপ্রোপিন

প্রোপিনকে টাইটানিয়াম ক্লোরাইডের উপস্থিতিতে 140 atm চাপে 120°C তাপমাত্রায় উত্তপ্ত করলে পলিপ্রোপিন উৎপন্ন হয়।

পলিপ্রোপিন

পলিপ্রোপিন দিয়ে দড়ি, পাইপ, কার্পেট প্রভৃতি তৈরী করায় এটি পলিথিনের চেয়ে শক্ত এবং হালকা ।

image14 পলিপ্রোপিন দিয়ে কার্পেট

 

পলিভিনাইল ক্লোরাইড (PVC)

ভিনাইল ক্লোরাইডকে জৈব পার অক্সাইডের উপস্থিতিতে উচ্চ চাপ ও তাপমাত্রায় উত্তপ্ত করলে পলিভিনাইল ক্লোরাইড (PVC) উৎপন্ন হয়।

পলিভিনাইল ক্লোরাইড (PVC)

ঘনীভবন পলিমার ( Condensation Polymer)

যে পলিমারকরণ বিক্রিয়ায় মনোমার  অনুসমূহ পরস্পরের সাথে যুক্ত হবার সময় ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র অনু যেমন- H2O, CO2  ইত্যাদি অপসারণ করে সেই পলিমারকরণকে ঘনীভবন পলিমারকরণ বিক্রিয়া বলে।

 

নাইলন 6:6 উৎপাদন

টাইটানিয়াম অক্সাইডের উপস্থিতিতে হেক্সামিথিলিন ডাই অ্যামিন এর সাথে অ্যাডিপিক এসিড উত্তপ্ত করলে নাইলন -6:6  উৎপন্ন হয়।

নাইলন 6:6 উৎপাদন

 

উৎসের উপর ভিত্তি করে পলিমারকে আবার দুই ভাগে করা যায়। যথা-

  • প্রাকৃতিক পলিমার
  • কৃত্রিম পলিমার

প্রাকৃতিক পলিমার

প্রাকৃতিকভাবে অনেক পলিমার উৎপন্ন হয়। যেমন- উদ্ভিদের সেলুলোজ ও স্টার্চ দুটোই প্রাকৃতিক পলিমার। যা বহুসংখ্যক গ্লুকোজ অনু থেকে তৈরী হয়। রাবার গাছের কষ একটি প্রাকৃতিক পলিমার।

কৃত্রিম পলিমার বা প্লাস্টিক

শক্ত, হালকা, সস্তা এবং যেকোনো পছন্দসই রঙের প্লাস্টিক পাওয়া যায়। প্লাস্টিককে গলানো যায় এবং ছাঁচে ঢেলে যেকোনো আকার দেওয়া যায়। প্লাস্টিক শব্দটি গ্রীক শব্দ থেকে এসেছে। যার অর্থ গলানো সম্ভব। বর্তমানে প্লাস্টিকের ব্যবহার ব্যাপক।

বিভিন্ন ধরনের পলিমার, তার ধর্ম ও ব্যবহার (Different types of polymers, their properties and uses)

পলিমারের নাম মনোমারের সংকেত  পলিমারের ধর্ম ব্যবহার
পলিথিন CH2=CH2 টেকসই প্লাস্টিক ব্যাগ, প্লাস্টিক শিট
পলিপ্রোপিন CH2=CH-CH3 টেকসই প্লাস্টিক রশি, কার্পেট, প্লাস্টিক বোতল
পলিভিনাইল ক্লোরাইড (PVC) CH2=CHCl শক্ত, কঠিন এবং পলিথিনের তুলনায় কম নমনীয় পানির পাইপ, বিদুৎ অপরিবাহী পদার্থ
নাইলন 6:6 HOOC-CH24-COOH

ও H2N-CH26-NH2

চকচকে, টেকসই, নমনীয় কৃত্রিম কাপড়, রশি, দাঁতের ব্রাশ